Home Blog Page 469

বাস্তবমুখী চরিত্রে কাজ করতে ভালো লাগে:অর্ষা

ORSHA-2

আসন্ন ঈদের বেশকিছু নাটকের শুটিং নিয়ে ব্যস্ত আছেন লাক্স-চ্যানেল আই তারকা অর্ষা। এছাড়াও প্রচার চলতি ধারাবাহিক নাটকের শুটিং নিয়ে ব্যস্ত থাকতে হচ্ছে তাকে। অভিনয় ও সমসাময়িক বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন অর্ষা-

আনন্দ আলো: ব্যস্ততা কী খবর?

অর্ষা: মাঝে স্কলারশিপ নিয়ে দেশের বাইরে ছিলাম বেশ কয়েক মাস। ফিরেই গত ঈদের কয়েকটি নাটকের কাজ করেছি। এরমধ্যে অন্যতম নাটক ছিলো চ্যানেল আই-এর ‘ছোটকাকু’।

আনন্দ আলো: নতুন কাজের কী অবস্থা?

অর্ষা: কোরবানির ঈদের জন্য কয়েকটি নাটকের কাজ করেছি। এগুলোর মধ্যে উলে­খযোগ্য হলো সকাল আহমেদের ‘পাতালপুরীর গল্প’, শিখর শাহরিয়ারের ‘মেখে দিলাম ভালোবাসা’, সায়েম সমাহারের ‘ট্রায়াঙ্গল লাভস্টোরি’। এ ছাড়া বিশিষ্ট শিশুসাহিত্যিক ফরিদুর রেজা সাগরের গল্প নিয়ে জনপ্রিয় নির্মাতা আফজাল হোসেনের পরিচালনায় ঈদ ধারাবাহিক ‘ছোটকাকু’র কাজ করবো। এখন নাটকটির চিত্রনাট্যের কাজ চলছে। কিছুদিন পর এর দৃশ্যধারণ শুরু হবে। এছাড়াও কয়েকদিন আগে মেজবাহ্ শিকদারের রচনা ও পরিচালনায় ‘অন্তহীন অপেক্ষা’ শিরোনামের একটি নাটকে অভিনয় করেছি। এতে আমার বিপরীতে ছিলেন অপূর্ব।

আনন্দ আলো: আপনার অভিনীত চ্যানেল আইতে ‘শূণ্য জীবন’ ধারাবাহিকটি প্রচার হচ্ছে…

অর্ষা: সত্যি বলতে কি- নানা ব্যস্ততায় নিয়ম করে নাটকটি দেখা হয়ে ওঠে না। সুযোগ পেলে দেখার চেষ্টা করি। বিশিষ্ট নারী উদ্যোক্তা কণা রেজার গল্প নিয়ে নাটকটি বেশ সুন্দরভাবে উপস্থাপন করেছেন পরিচালক মেহেদী বিন আশরাফ। এটি নিয়েও বেশ সাড়া পাচ্ছি।

আনন্দ আলো: অন্য কোনো ধারাবাহিকের কাজ করছেন?

অর্ষা: হ্যাঁ। ‘শূন্য জীবন’ ছাড়া রয়েছে সকাল আহমেদের ‘মিস্টার অ্যান্ড মিসেস চৌধুরী’ ও ‘ফুলমহল রাজবাড়ী’ ধারাবাহিক দুটিতে অভিনয় করছি।

আনন্দ আলো: নিজেকে কোন ধরনের চরিত্রে বেশি দেখতে ভালো লাগে?

অর্ষা: বৈচিত্র্যপূর্ণ চরিত্র আমাকে বেশি টানে। বাস্তবমুখী চরিত্রে কাজ করতে ভালো লাগে। সে কারণে চেষ্টা থাকে ভালো কাজের।

ব্যাটে বলে মিলছে না: হাসিন

Hasin

বেশকিছু ধারাবাহিক নাটকের শুটিং নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন ভিট-চ্যানেল আই তারকা হাসিন। এছাড়াও সম্প্রতি ঈদের কয়েকটি নাটকেও শুটিং করেছেন গ্ল্যামার এই কন্যা। অভিনয় ও সমসাময়িক বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন হাসিন-
আনন্দ আলো: এখন কী নিয়ে ব্যস্ত?
হাসিন: প্রচার চলতি ধারাবাহিকের কাজ নিয়েই বেশি ব্যস্ত রয়েছি। সম্প্রতি ‘বুক ভেঙ্গে যায়’ নামে একটি এক ঘণ্টার নাটকের কাজ করেছি। এটি একুশে টেলিভিশনে শিগগিরই প্রচার হবে। অন্যদিকে নির্মাতা মোহন খান ও শহিদুজ্জামান সেলিমের পরিচালনায় দুটি ঈদের নাটকে কাজ করার কথা রয়েছে। আনন্দ আলো: আপনার অভিনীত কয়টি ধারাবাহিক প্রচার হচ্ছে? হাসিন: উড়ামন, সাহেব বাবুর বৈঠকখানা, গ্র্যান্ড মাস্টার, ভৈরব, তিনি আসবেন সহ বেশকিছু ধারাবাহিকের কাজ করছি। নাটকগুলোর শুটিং নিয়েই বেশি ব্যস্ত থাকতে হচ্ছে।
আনন্দ আলো: নতুন কোনো ধারবাহিকে কাজ করছেন কী?
হাসিন: হ্যাঁ। ‘মেঘের ওপারে’ শিরোনামের একটি ধারাবাহিকে শুটিং করেছি। নাটকটির ১৩ পর্বের একটি লটের শুটিং শেষ হয়েছে। লোপা কায়সারের উপন্যাস অবলম্বনে এটি পরিচালনা করছেন কাফি বীর। এটি চ্যানেল আইতে প্রচার হবে। নাটকের গল্পটা খুব সুন্দর।
আনন্দ আলো: আপনাকে বিজ্ঞাপনে একেবারেই কম দেখা যাচ্ছে…
হাসিন: আমার চার বছরের ক্যারিয়ারে হাতেগোনা বিজ্ঞাপনে কাজ করেছি। সম্প্রতি আরএফএলের একটি বিজ্ঞাপন বিভিন্ন চ্যানেলে প্রচার হচ্ছে। কেন জানি বিজ্ঞাপন আমার কম করা হচ্ছে। ব্যাটে বলে মিলে না বলেই বিজ্ঞাপন করা হচ্ছে না। আমি আসলে বিজ্ঞাপনের কনসেপ্টটাকে খুব প্রাধান্য দেই। বিজ্ঞাপনের প্রস্তাব পাই অনেক। কিন্তু থিম পছন্দ না হওয়ায় ব্যাটে বলে মেলে না।
আনন্দ আলো: চলচ্চিত্র নিয়ে কিছু বলবেন?
হাসিন: চলচ্চিত্র নিয়ে আমার ভাবনা আছে, কিন্তু মাথাব্যথা নেই। আমি শুধু আর্ট ফিল্ম করব বাণিজ্যিক সিনেমায় কাজ করব না এমন চিন্তা কখনই করি না। তবে বাণিজ্যিক ছবি মানেই একটু খোলামেলা পোশাক বিষয়টাকে আমি এভাবে দেখি না। আসল কথা হলো ভালো গল্প। কোনো গল্প শুনে যখন আমি বলবো- ‘ওয়াও’। তবেই আমি সেই ছবিতে কাজ করবো।

মনের মতো না হলে ভুল করেও চলচ্চিত্রে অভিনয় করব না: মেহজাবীন

নতুন কিছু নাটকের কাজ নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন লাক্স-চ্যানেল আই তারকা মেহজাবীন চৌধুরী। এছাড়াও নতুন বিজ্ঞাপনে কাজ করছেন এই গ্ল্যামার কন্যা। সমসাময়িক ব্যস্ততা নিয়ে কথা বলেছেন তিনি-
আনন্দ আলো: নতুন কোনো কাজ করছেন
মেহজাবীন: হ্যাঁ। এখন তো ঈদের কাজই বেশি করছি। চিত্রনায়ক ইমনের সঙ্গে জুটি হয়ে নতুন একটি নাটকে অভিনয় করেছি। এটি ঈদে প্রচার হবে। এছাড়াও ঈদের আরো কাজ করছি। এরইমধ্যে একটি নাচের অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছি। নাটকের কাজ এখনও সেভাবে ঠিক হয়নি।
আনন্দ আলো: ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করছেন না?
মেহজাবীন: প্রায় তিন বছর পর সম্প্রতি নতুন একটি ধারাবাহিক নাটকে কাজ করেছি। নাটকের নাম ‘সুপারস্টার’। নাটকটি নির্মাণ করেছেন রায়হান খান। দেশের বাইরে এ নাটকের শুটিং হয়েছে। আমি সাধারণত খণ্ড নাটকের বাইরে কাজ করি না। আমার মতে, সব সময়ই যে কাজে ব্যস্ত থাকতে হবে এমন কোনো কথা নেই। আমি কম কম কাজ করতে পছন্দ করি।
আনন্দ আলো: কিছুদিন আগে আপনার অভিনীত ‘পরবাসিনী’ ছবি থেকে ফুটেজ ফেলে দেয়ার কথা শোনা গেলো…
মেহজাবীন: ছবিটিতে কাজের শুরুতে যে রকম পরিকল্পনা ছিল তার কোনো কিছুই পরে বাস্তবায়িত হয়নি বলে আমি এতে পরবর্তী সময়ে কাজ করিনি। তাই এ ছবি নিয়ে আমার তেমন বলার কিছু নেই।
আনন্দ আলো: চলচ্চিত্রে কী তাহলে আপনাকে দেখাই যাবে না?
মেহজাবীন: গল্প, চরিত্র, প্রযোজনা সংস্থা এবং সর্বোপরি পরিচালকের ভাবনা আমার কাছে ভালো লাগলে তবেই চলচ্চিত্রে দেখা যাবে। মনের মতো না হলে আর ভুল করেও চলচ্চিত্রে কাজ করব না। কারন ইতোমধ্যে দুটি চলচ্চিত্রে চুক্তিবদ্ধ হয়েও কেনো জানি ছবি দুটি হলো না। তাছাড়া আমার পরিবার চলচ্চিত্রে অভিনয় করার ব্যাপারে সাপোর্টও করেন না। তাই পরিবারের মতের বাইরে গিয়ে কিছু করতে চাই না। আনন্দ আলো: বিজ্ঞাপনের খবর কী? মেহজাবীন: বাংলা লিংকের দুটি নতুন বিজ্ঞাপনে কাজ করেছি। আগের বিজ্ঞাপনগুলোর মতো এগুলোও দর্শকদের পছন্দ হবে বলে আমার বিশ্বাস।

টিভিতে নিজেকে বেশী বেশী দেখানো মানে দর্শককে বিরক্ত করা -মাহফুজ আহমেদ

Mahfuz-Ahmmed

কোরবানি ঈদের জন্য দুটি নাটক নির্মাণের পরিকল্পনা নিয়েছেন অভিনেতা-নির্মাতা মাহফুজ আহমেদ। এছাড়াও কয়েকটি নতুন নাটকে অভিনয় করছেন বলে জানান তিনি। অভিনয় ও সমসাময়িক বিষয় নিয়ে কথা হল তার সাথে-

আনন্দ আলো: কোরবানি ঈদের জন্য কি নির্মাণ করছেন?

মাহফুজ আহমেদ: এবার ঈদের জন্য ‘তুমি আমাকে বলোনি’ এবং ‘সেল নম্বর ৫১১’ নামে দুটি নাটক নির্মাণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ‘তুমি আমাকে বলোনি’ নাটকে অপি করিম ও নোবেল অভিনয় করবে। এটি এনটিভিতে প্রচার হবে। অন্যদিকে ‘সেল নম্বর ৫১১’ নাটকে আফরান নিশো ও তিশা অভিনয় করবে। এটি চ্যানেল আইতে প্রচার হবে। আনন্দ আলো: আপনার অভিনীত নাটক কী ঈদে প্রচার হবে না? মাহফুজ আহমেদ: বদরুল আনাম সৌদের রচনায় ও আরিফ খানের পরিচালনায় ‘আমার বেলা যে যায়’ নামে একটি টেলিফিল্মে কাজ করেছি। আমার বিপরীতে রয়েছেন পূর্ণিমা। হাতে কিছু স্ক্রিপ্ট আছে। সবকিছু ঠিক থাকলে আরো কিছু কাজ করা হবে।  আনন্দ আলো: আপনাকে আগের চেয়ে নাটকে কম দেখা যাচ্ছে… মাহফুজ আহমেদ: একটা সময় শুধু অভিনয়-ই করতাম। এখন আর সেটা হচ্ছে না। ফিল্ম নিয়ে মাঝে বেশ ব্যস্ত ছিলাম। নিজের প্রযোজনা হাউজ রয়েছে। পরিচালনাও করছি। সব মিলিয়ে আগের মতো চাইলেই অভিনয় করতে পারি না। তাছাড়া বেশি বেশি টিভিতে নিজেকে দেখানো মানে দর্শককে বিরক্ত করা। আমি সেটা করতে চাই না। আমি একটু ভেবেচিন্তে ভালো কাজগুলো করার চেষ্টা করছি। আনন্দ আলো: চ্যানেল আইতে আপনার অভিনীত ‘একজন মায়াবতী’ ধারাবাহিক প্রচার হচ্ছে… মাহফুজ আহমেদ: এটা হুমায়ূন আহমেদের উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে। পরিচালনা করেছেন মাজহারুল ইসলাম। কাজটি করতে পেরে আমার ভালো লেগেছে। দর্শকদের কাছে থেকেও ইতিবাচক সাড়া পাচ্ছি। এ ছাড়া বর্তমানে নতুন কোনো ধারাবাহিকে কাজ করছি না। আনন্দ আলো: নতুন কোনো চলচ্চিত্র… মাহফুজ আহমেদ: এ বছর নতুন কোনো চলচ্চিত্র নিয়ে ভাবছি না। আগামী বছর নতুন চলচ্চিত্রে হাত দেব। চলচ্চিত্রের বিষয়ে একটু সময় নিয়ে গুছিয়ে করতে চাই। বিনোদনমূলক ছবি বানাতে চাই। যার বাজেট হবে ১ কোটি টাকা।’

জনপ্রিয় বিভাগ