SHARE
Shofiq-rahman

এখন তো ভালোবাসা দিবস নিয়ে অনেক মাতামাতি। ২০০৫ সালেই আনন্দ আলো এ ব্যাপারে ভবিষ্যৎ ভাবনার কথা উল্লেখ করেছিল। গুণী সাংবাদিক শফিক রেহমান ও তার স্ত্রী তালেয়া রহমানকে প্রচ্ছদ করে আনন্দ আলোর বিশেষ সংখ্যা প্রকাশ হয়েছিল। সেদিন শফিক রেহমান বলেছিলেন, ভবিষ্যতে ১৪ ফেব্রæয়ারি আমাদের দেশে ‘ভালোবাসা দিবস’ পালনের দিন হিসেবে স্বীকৃতি পাবে। কারণ দেশের তরুণ প্রজন্ম দিনটিকে ভালোবেসে ফেলেছে। সেদিন তরুণদের উদ্দেশে ৪টি পরামর্শ দিয়েছিলেন তিনি। এক. প্রেম করতেও পয়সা লাগে। নিদেন পক্ষে রিকশায় ঘুরতে হবে। ফুচকা খেতে হবে। কাজেই প্রেমের প্রথম কথা স্বাবলম্বী হন। দুই. বিয়ে করার আগে ভেবে নিন পরস্পরকে চিনছেন তো? তিন. বিয়ের আগে শারীরিক সম্পর্ক না থাকাই ভালো।