SHARE
Shakib-Khan

ঢাকাই চলচ্চিত্রের জীবন্ত কিংবদন্তী নায়ক শাকিব খানের একটি সিদ্ধান্তকে ঘিরে তুমুল বিতর্ক দেখা দিয়েছে। শাকিব খান সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, করোনা কালীন দুর্যোগে চলচ্চিত্র শিল্পকে বাঁচাতে তিনি অভিনয়ের জন্য পারিশ্রমিক কমপক্ষে তিন ভাগের এক ভাগ নিতে রাজি আছেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শাকিব খান প্রতি ছবিতে অভিনয়ের জন্য ৬০ থেকে ৭০ লাখ টাকা নিয়ে থাকেন। তার বর্তমান ঘোষনা অনুযায়ী প্রতি ছবিতে কমপক্ষে ২০ লাখ প্রদান করতে হবে। এখানেই শুরু হয়েছে ব্যাপক সমালোচনা। একপক্ষ বলছেন, শাকিব খান তার এই সিদ্ধান্ত যদি আরও আগে নিতেন তাহলে আমাদের চলচ্চিত্র আজকের করুণ অবস্থায় দাঁড়াতো না। শুধুমাত্র শাকিব খানের পারিশ্রমিক মেটাতে গিয়ে অনেক প্রযোজক আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন। অন্য পক্ষের মতামত, করোনার এই দুঃসময়ে সিনেমা হুমকির মুখে পড়েছে। সিনেমা হলে দর্শক যাচ্ছে না। তাহলে ছবি বানিয়ে কার কি লাভ হবে? নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্ব বলেছেন, বাজার পড়ে যাবার ভয়ে শাকিব খান নতুন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। কিন্তু আমার মতে কাজের কাজ কিছুই হবে না। শাকিবকে নিয়ে কেউ আর ছবি বানানোর সাহস করবে না।