Home শীর্ষ কাহিনি প্রচ্ছদ মুখ রেখায় আঁকা জীবনসঙ্গী

রেখায় আঁকা জীবনসঙ্গী

SHARE

আনন্দ আলো প্রতিবেদন
বর্তমান সময়ের কথাই যদি ধরি তাহলেও দেখুন আমাদের প্রিয় অভিনেতা, নাট্যকার, পরিচালক, চিত্রশিল্পী আফজাল হোসেন কতটা ব্যস্ত সময় পার করছেন। মাত্র এক মাসের ব্যবধানে দৃশ্যত কতগুলো পজিটিভ কাজের সাথে তিনি জড়িত ছিলেন তার একটি চিত্র আপনাদের সামনে তুলে ধরছি। গুণী অভিনেতা, নির্মাতা আফজাল হোসেনকে এখন তার ভক্তরা ছোটকাকু নামেই বেশী চিনে। বিশিষ্ট শিশুসাহিত্যিক ফরিদুর রেজা সাগরের জনপ্রিয় গোয়েন্দা সিরিজ ছোটকাকু অবলম্বনে প্রতি ঈদেই নতুন সিরিয়াল তৈরি করেন আফজাল হোসেন। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। ছোটকাকুর নতুন সিরিয়াল নির্মাণে ব্যস্ত ছিলেন। পাশাপাশি অতি সম্প্রতি ‘রেখা’ নামে একটি ধারাবাহিক নাটকে অভিনয়ের জন্য নেপালেও গিয়েছিলেন। নেপাল থেকে ফিরে সীমাহীন ব্যস্ততার মাঝেও বিটিভির একটি ব্যতিক্রমধর্মী আড্ডা অনুষ্ঠান উপস্থাপনাও করেছেন। এক সময়ে বিটিভিতে ‘কোথাও কেউ নেই’ নামে হুমায়ূন আহমেদের লেখা একটি ধারাবাহিক নাটক ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল। ওই নাটকে বাকের ও মুনা চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন দেশ বরেণ্য দুই অভিনয় শিল্পী আসাদুজ্জামান নূর ও সুবর্না মুস্তাফা। নাটকে বাকের ভাইয়ের ফাঁসী হবে জানতে পেয়ে দেশব্যাপি ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়েছিল। ওই নাটকের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক অভিনয় শিল্পীদের নিয়ে বিটিভি ঈদ অনুষ্ঠান মালার আওতায় ব্যতিক্রমধর্মী এক আড্ডার আয়োজন করে। সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন আফজাল হোসেন। আনন্দ আলোর জন্য আমরা যখন এই প্রতিবেদন লিখছি তখনও তিনি চ্যানেল আই এর জন্য একটি বিশেষ অনুষ্ঠান নির্মাণে ব্যস্ত সময় পার করছিলেন। আরও একটি খবর আছে। শিশু একাডেমি কর্তৃক একটি শিশুতোষ চলচ্চিত্র নির্মাণের দায়িত্বও পেয়েছেন আফজাল হোসেন। কাজেই বোঝা যাচ্ছে সময়টাই এখন আফজাল হোসেনের। অবশ্য শুরু থেকেই অর্থাৎ ৭০’র দশক থেকেই আফজাল হোসেন ও তার সতীর্থরা মিলেই আমাদের
সাংস্কৃতিক অঙ্গণ তথা শোবিজকে এগিয়ে নিয়ে চলেছেন। মঞ্চকে বলা হয় অভিনয় শেখার উৎকৃষ্ট মাধ্যম। সেখানেও ছিলেন আফজাল হোসেন। ঢাকা থিয়েটারের একাধিক সফল মঞ্চ নাটকে অভিনয় করেছেন। টিভি নাটকের কথা উঠলেই তো আফজাল হোসেনের নামটিই স্বগৌরবে উচ্চারিত হয়। আর যদি বিজ্ঞাপন সিনেমার কথা ওঠে তাহলে তো আফজাল হোসেনই সেখানে মহাগুরু। এই দেশে বিজ্ঞাপন সিনেমার আজকের যে ঔজ্জ্বল্য দেখি আমরা তার পেছনে আফজাল হোসেনের অনেক অবদান রয়েছে। একজন নাট্যকার, নির্মাতা হিসেবেও আফজাল হোসেন ব্যাপক জনপ্রিয়। আর তার চিত্রশিল্পের জগৎ এতটাই সমৃদ্ধ যে কয়েক লাইনে তার বর্ণনা দেওয়া সম্ভব নয়। বন্ধু বিশিষ্ট কথাসাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলনের সাথে যুবকদ্বয় নামে যুগলবন্দী একটি উপন্যাস লিখে সাহিত্যাঙ্গনেও ব্যাপক সাড়া ফেলেন। তারই ধারাবাহিকতায় চলছে সাহিত্য কর্মও। একজন কবি হিসেবেও আফজাল হোসেন পাঠকের কাছে ব্যাপক সমাদৃত।

তবে বর্তমান সময়ে অভিনয় এবং নির্মাণের ক্ষেত্রেই আফজাল হোসেন বেশী সময় দিচ্ছেন। ছোটকাকু সিরিজকে কেন্দ্র করে প্রায় সারা বছর জুড়েই তার ব্যস্ততা থাকে। ফাঁকে ফাঁকে একক ও ধারাবাহিক নাটকেও অভিনয় করেন। সম্প্রতি ‘রেখা’ নামে একটি ধারাবাহিক নাটকের কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন। তার সাথে স্ত্রীর ভ‚মিকায় অভিনয় করেছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী অপি করিম। নেপাল ও বাংলাদেশে নাটকটির শুটিং হয়েছে। ‘রেখা’ নামের এই ধারাবাহিক নাটকটি নিয়ে আফজাল হোসেন বেশ আশাবাদী। একান্ত পারিবারিক গল্পের এই নাটকটি পারিবারিক বন্ধন দৃঢ় করতে উল্লেখযোগ্য ভ‚মিকা রাখবে বলে তাঁর বিশ্বাস। নাটকটির কাহিনী লিখেছেন পান্থ শাহরিয়ার। কেন্দ্রীয় দুটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন আফজাল হোসেন ও অপি করিম। তাদের সাথে রয়েছেন রাজীব রাজ, মুনিয়া, পিংকি হিল্লোল সহ আরও অনেকে।
নাটকটির প্রযোজক খন্দকার আলমগীর। যিনি আফজাল হোসেনের দীর্ঘদিনের সহকর্মী, বন্ধুও বটে। নাটকটি পরিচালনা করেছেন আরিফ খান। শুধু আফজাল হোসেন ও অপি করিমই নন নাটকটির ব্যাপারে পরিচালক ও প্রযোজকও বেশ খুশি। দু’জনই অভিন্ন সুরে বললেন, ‘রেখা’ নামের এই ধারাবাহিক নাটকে আফজাল হোসেন ও অপির অভিনয় দেখে দর্শক আনন্দের পাশাপাশি পারিবারিক মায়ার বন্ধনে জড়িয়ে যাবেন একথা নিঃসন্দেহে বলা যায়।
এখন প্রশ্ন হলো কি আছে ‘রেখা’র কাহিনীতে। পরিচালক, অভিনেতা, অভিনেত্রীরা পুরো কাহিনী খোলাসা করতে নারাজ। তবে যতটুকু জানা গেছে তাতে কাহিনীর সারমর্ম অনেকটা এরকমÑ একটি প্রেসের মালিক জয়নাল। তার স্ত্রীর নাম রেখা। তাদের বহুদিনের শখ দেশের বাইরে বেড়াতে যাবে। কিন্তু নানা কারণে সিদ্ধান্ত নিয়েও শেষ পর্যন্ত সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করতে পারে না। হয়তো দেখা গেছে দু’জনে বিদেশে যাবে বলে সিদ্ধান্ত চ‚ড়ান্ত। সংসারের খরচ বাঁচিয়ে বিদেশে যাবার জন্য রেখা টাকা জমিয়েছে। হঠাৎ দেখা গেল প্রেসের মেশিনে ত্রæটি দেখা দিয়েছে। মেশিন সারাতে অর্থের দরকার। বিদেশে যাবার জন্য যে টাকা জমিয়েছে রেখা সেটা দিয়েই মেশিন মেরামত করতে হল। তবে এত কিছুর পরও প্রিয়তমা স্ত্রীকে সাথে নিয়ে বিদেশে বেড়াতে যায় জয়নাল এবং সংসার জীবনের অনেক অজানা রহস্য উদ্ধার করে। যে রহস্যের মাঝে অনেক মায়া জড়িয়ে আছে। অনেক মায়া।
রেখা নামের এই ধারাবাহিক নাটকটি অচিরেই চ্যানেল আইতে প্রচার হবে।