Home সাক্ষাৎকার রাবেয়া খাতুনের জন্মদিনে আনন্দ আয়োজন

রাবেয়া খাতুনের জন্মদিনে আনন্দ আয়োজন

SHARE
Rabeya-Khatun

২৭ ডিসেম্বর বাংলা সাহিত্যের জন্য একটি বিশেষ দিন। এই দিনে জন্ম নিয়েছেন বাংলা সাহিত্যের জীবন্ত কিংবদনিৱ লেখক রাবেয়া খাতুন। প্রতিবছরই দিনটি অন্যরকম এক আনন্দ আয়োজনে পালন করা হয়। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। দেশ বরেণ্য এই লেখকের শুভ জন্মদিন উপলক্ষে ঢাকার বনানীতে তাঁর বাসভবনে এক আনন্দ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। অনিন্দ্য সুন্দর এ আনন্দ আয়োজনে একেবারেই কাছের বন্ধু-স্বজনসহ পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে রাবেয়া খাতুনের জন্মদিন উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে ফুলের শুভেচ্ছা প্রদান করা হয়। আরও ফুলের শুভেচ্ছা পাঠান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহনমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ স্বয়ং উপস্থিত থেকে রাবেয়া খাতুনকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানান। আরও শুভেচ্ছা জানান বিশিষ্ট নাট্য ব্যক্তিত্ব সৈয়দ সালাহ উদ্দিন জাকী, আনোয়ারা সৈয়দ হক, নাসিরউদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু, আফজাল হোসেন, সুবর্ণা মুসৱাফা, সানাউল আরেফিন, লেখক আনিসুল হক, মোশতাক হোসেন, প্রকাশকদের মধ্যে মাজহারুল ইসলাম, ফরিদ আহমেদ, কামরুল হাসান শায়সসহ অনেকে। গান গেয়ে শোনান রবীন্দ্রকন্যা রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা।

আমাদের প্রিয় লেখক রাবেয়া খাতুন উপন্যাস, গবেষণাধর্মী রচনা, ছোটগল্প, ধর্মীয় ও ভ্রমণ কাহিনি, কিশোর উপন্যাস এবং স্মৃতিকথাসহ একশ’রও বেশি বই লিখেছেন। রেডিও, টেলিভিশনে প্রচার হয়েছে তার লেখা অসংখ্য নাটক। তাঁর গল্প, উপন্যাস নিয়ে নির্মিত হয়েছে বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্র।

সাহিত্য চর্চার স্বীকৃতি হিসেবে তিনি একুশে পদক এবং বাংলা একাডেমি পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন। তিনি পেয়েছেন নাসিরুদ্দিন স্বর্ণপদক, হুমায়ূন স্মৃতি পুরস্কার, বাংলাদেশ লেখিকা সংঘ পুরস্কার, শের-ই-বাংলা স্বর্ণপদক, ঋষিজ সাহিত্য পদকসহ অসংখ্য পুরস্কার ও সম্মাননা।