Home আরোও বিভাগ টিভি গাইড বিশ্ব সুন্দরীর বাবা!

বিশ্ব সুন্দরীর বাবা!

SHARE

ছোট ও বড় পর্দার সুঅভিনেতা ফজলুর রহমান বাবু। অভিনয় গুণে পেয়েছেন দুইবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। বর্তমানে চলচ্চিত্রেই বেশি কাজ করছেন তিনি। মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে তার বেশ কয়েকটি ছবি। কথা হলো তার সঙ্গে-
আনন্দ আলো: এখন কি কাজ নিয়ে ব্যস্ত আছেন?
ফজলুর রহমান বাবু: চয়নিকা চৌধুরী পরিচালিত ‘বিশ্ব সুন্দরী’ ছবিতে কাজ করেছি। এখানে আমি নায়িকা পরীমনির বাবার চরিত্রে অভিনয় করেছি। আমার চরিত্রের নাম রইস উদ্দিন। এখানে ইতিবাচক চরিত্রেই দেখা যাবে আমাকে। আমার অংশের অনেক কাজ শেষ হয়েছে। ছবির গল্পটা আমার কাছে ভালো লেগেছে।
আনন্দ আলো: এখনকার ব্যস্ততা কী চলচ্চিত্র নিয়েই?
ফজলুর রহমান বাবু: ইদানীং চলচ্চিত্রেই বেশি কাজ করা হচ্ছে। চলচ্চিত্রেই সময় দিতে চাই। ‘বিশ্ব সুন্দরী’সহ একাধিক ছবিতে কাজ করছি। ‘মায়াবতি’, ‘নোনাজলের কাব্য’, ইন্দুবালা’সহ কয়েকটি ছবির শুটিং শেষ হয়েছে। এ ছাড়া কয়েকটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছি এগুলোর শুটিং শুরু হবে।
আনন্দ আলো: কোন ধরনের ছবিতে কাজ করতে আপনার বেশি ভালো লাগে?
ফজলুর রহমান বাবু: দেখুন, ভিন্ন ও বাণিজ্যিক ধারার চলচ্চিত্র বলতে কোনো কথা নেই। শুধু রোমান্টিক-অ্যাকশন আর গান থাকলেই বাণিজ্যিক ছবি হয় না। প্রমোশনের কারণে ‘অজ্ঞাতনামা’ ছবিটি মুক্তির আগে আলোচিত না হলেও মুক্তির পর দারুণ প্রশংসিত হয়। সিনেমা হলে হোক আর ইউটিউবে হোক গত দুই বছরে এ ছবিটি প্রচুর দর্শক দেখেছে। আন্তর্জাতিকভাবেও সুনাম অর্জন করেছে। এটিকে আমরা কোন ধারার ছবি বলব? অথচ বাণিজ্যিক ধারার কোনো উপাদান হয়তো এই ছবির বেলায় নেই। কিন্তু এটি দর্শক টানতে সমর্থ হয়েছে। যে ছবিটা দর্শক টানতে সমর্থ হয় সেটাই বাণিজ্যিক ধারার চলচ্চিত্র বলে আমি মনে করি।
আনন্দ আলো: আর নাটকের খবর কি?
ফজলুর রহমান বাবু: চলচ্চিত্রের কারণে নাটকে খুব কম কাজ করা হয়। মাঝেমধ্যে খন্ড নাটকে কাজ করলেও ধারাবাহিক নাটক একেবারেই কম কাজ করছি। চলচ্চিত্রের ব্যস্ততার জন্য ধারাবাহিক নাটকের সময় বের করা সম্ভব হয় না। তবে গত ঈদুল ফিতরে সাত পর্বের একটি ধারাবাহিক ও কয়েকটি খন্ড নাটকে অভিনয় করেছিলাম। আসছে ঈদেও হাতে গোনা কয়েকটি নাটকে দেখা যাবে। ইতোমধ্যে কয়েকটি খন্ড নাটকের কাজ শেষ করেছি।