Home আরোও বিভাগ ক্রীড়া বিনোদন বিপিএল এর ষষ্ঠ আসর ক্রিকেট উৎসবে মেতেছে সবাই

বিপিএল এর ষষ্ঠ আসর ক্রিকেট উৎসবে মেতেছে সবাই

SHARE
BPL

মামুনুর রহমান
ক্রিকেট উৎসবে মেতে উঠেছে বাংলাদেশ। বিপিএল এর ষষ্ঠ আসর মাতাতে গোটা বিশ্বের নামকরা শতাধিক ক্রিকেটার এখন বাংলাদেশে অবস্থান করছেন। এতদিন যাদের কথা ভেবে, যাদেরকে আইডল ভেবে আমাদের ক্রিকেট যোদ্ধারা বেড়ে ওঠার স্বপ্ন সাজিয়েছিল তারাই এখন সহযোদ্ধা। ক্রিস গেইলের কথাই ধরুন না। জীবন্ত কিংবদন্তী ক্রিকেটার। একটা সময় বাংলাদেশের তরুণ ক্রিকেটারদের জন্য ক্রিস গেইল ছিলেন স্বপ্নের তারকা। কাছ থেকে দেখার আশায় কতই না স্বপ্ন বুনেছেন কোনো কোনো তরুণ ক্রিকেটার। সেই ক্রিস গেইল এখন তাদের সতীর্থ ক্রিকেটার। একই দলে একই সাথে খেলার সুযোগ পেয়ে মুগ্ধতা ছড়ানো গল্পই এখন আমাদের ক্রিকেট অঙ্গনের ঔজ্জ্বল্য প্রকাশ করছে। শুধু কি ক্রিস গেইল এসেছেন বাংলাদেশে? না, আরও অনেকে এসেছেন। সংখ্যাটি ১০০’র উপরে হবে। এবার ৭টি দল অংশ নিয়েছে বিপিএল’ এর ষষ্ঠ আসরে। সাত দলের সাত জন অধিনায়কের তালিকায়ও যুক্ত হয়েছেন একজন বিদেশী তারকা। তার নাম ডেভিড ওয়ার্নার। সিলেট সিক্সার্স এর অধিনায়ক তিনি। অন্য ৬ দল যথাক্রমে রংপুর রাইর্ডাসের অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফি বিন মর্তুজা, ঢাকা ডাইনামাইটসের অধিনায়ক হিসেবে সাকিব আল হাসান, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস এর অধিনায়ক হিসেবে তামিম ইকবাল, খুলনা টাইটানস এর অধিনায়ক হিসেবে মাহমুদউল্লাহ, রাজশাহী কিংস এর অধিনায়ক হিসেবে মেহেদী হাসান মিরাজ এবং চিটাগাং ভাইকিংস এর অধিনায়ক হিসেবে মুশফিকুর রহীম দায়িত্ব পালন করছেন। পাশাপাশি সাতটি দলে বিদেশী ক্রিকেট তারকাদের ব্যাপক উপস্থিতি এবার বিপিএল এর আসরকে বিশেষ ভাবে আলোচিত ও আলোকিত করে তুলেছে। ক্রিকেট বিশ্বের নামকরা তারকারা এবার বিপিএল এর আসরে যোগ দিয়েছেন। ফলে বিপিএল এর ষষ্ঠ আসর হয়ে উঠেছে ক্রিকেট তারকাদের উৎবেরও কেন্দ্র বিন্দু। ঢাকা, সিলেট ও চট্টগ্রাম ৩টি ভেন্যুতে এবার বিপিএল’এর প্রতিযোগিতা চলছে। তাই গোটা দেশে চলছে ক্রিকেট উৎসব।
এবারের বিপিএল ক্রিকেট উৎসব উপলক্ষে বাংলাদেশের ক্রিকেটে একটা নব জাগরনের সূচনা হবে বলে অনেকে মনে করছেন। কারণ এবারের আসরটি অন্য ৫টি আসরের চেয়ে অনেক বেশি উজ্জ্বল। অনেক বেশি নামি-দামী ক্রিকেট তারকার সমাবেশ ঘটেছে এবারের বিপিএল আসরে। সবচেয়ে বড় কথা হলো বিশ্বের নামি-দামী ক্রিকেটাররা আমাদের দেশের ক্রিকেটারদের নেতৃত্বে বিভিন্ন দলে খেলছেন। আমাদের তরুণ ক্রিকেটার মেহেদী হাসান মিরাজের কথাই ধরুন। কত বয়স ওর? এই বয়সেই একটি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। তার নেতৃত্বে বিভিন্ন দেশের নামকরা ক্রিকেটার যেমন কায়েস আহমেদ, ক্রিস্টিয়ান জঙ্কার, ইসরু উদানা, লরি ইবান্স, রায়ান টেন ডেসকাট, সেকুগে প্রসন্ন ও মোহাম্মদ হাফিজ ক্রিকেট খেলছেন। এটি প্রেরণাদায়ী একটি ঘটনাও বটে। অন্যদিকে রংপুর রাইডার্সের অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফি নেতৃত্ব দিচ্ছেন বিশ্বখ্যাত ক্রিকেটার ক্রিস গেইল, এবি ডি ভিলিয়ার্স, অ্যালেক্স হেলস, রবি বোপারা, রাইলি রুশো, বেনি হাওয়েল, শন উইলিয়ামস ও শেলডন কটরেলকে।
ঢাকা ডাইনামাইটস এর অধিনায়ক হিসেবে সাকিব আল হাসান নেতৃত্ব দিচ্ছেন সুনীল নারাইন, রোডম্যান পাওয়েল, কাইরন পোলার্ড, আন্দ্রে রাসেল, হজরত উল্লাহ জাজাই, অ্যান্ড্রু বার্চ ও ইয়ান বেলকে।
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস এর অধিনায়ক হিসেবে তামিম ইকবাল নেতৃত্ব দিচ্ছেন শোয়েব মালিক, স্টিভেন স্মিথ, লিয়াম ডসন, শহীদ আফ্রিদী, থিসারা পেরো, এভিন লুইস, ওযাকার সালমা খেইল এবং আমীর ইয়ামিনকে।
খুলনা টাইটানস এর অধিনায়ক হিসেবে মাহমুদউল্লাহ নেতৃত্ব দিচ্ছেন কার্লোস ব্রাকেট, ডেভিড ম্যালান, আলী খান, জহির খান, লাসিথ মালিঙ্গা, ইয়াসির শাহ, বেন্ডন টেলর ও ডেভিড ভিসেকে।
সিলেট সিক্সার্স এর অধিনায়ক হিসেবে ডেভিড ওয়ার্নার নেতৃত্ব দিচ্ছেন সোহেল তানভীর, সন্দীপ লামিচানে, মোহাম্মদ ইরফান, গুলবাদিন নাইব, আন্দ্রে ফ্লেচার, নিকোলাস পুরান, ইমরান তাহির ও মোহাম্মদ নওয়াজকে।
চিটাগাং ভাইকিংস এর অধিনায়ক হিসেবে মুশফিকুর রহীম নেতৃত্ব দিচ্ছেন লুক রনকি, সিকান্দার রাজা, মোহাম্মদ শেহজাদ, রবার্ট ফ্রাইলিঙ্ক, ক্যামেরন ডেলপোর্ট, দাসনু শানাকা ও নজিব উল্লাহ জাদরানকে।
মজার কথা হলো খেলার মাঠে তো বটেই টিভিতে বিপিএল এর ক্রিকেট লড়াই দেখার ক্ষেত্রে গোটা দেশে ব্যাপক উৎসাহ ও উদ্দীপনার সৃষ্টি হয়েছে। বাসাবাড়িতে তো বটেই, অফিস আদালতে, রাস্তার মোড়ে চায়ের দোকানে টিভি পর্দায় বিপিএল এর খেলা দেখা এখন অনেকের অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। আমাদের বিশ্বাস এবারের বিপিএল সত্যিকার অর্থে দেশীয় ক্রিকেট তারকাদের মাঝে নতুন করে প্রেরণার সঞ্চার করবে। জয় হোক বাংলাদেশের ক্রিকেটের।