SHARE
Fazlur-Rahman-Babu

সুঅভিনেতা ফজলুর রহমান বাবু।  ছোটপর্দার পাশাপাশি বড় পর্দাতেও নিয়মিত অভিনয় করছেন। সম্প্রতি তিনি অস্ট্রেলিয়ায় মঞ্চ নাটকে অভিনয় ও গান পরিবেশন করেছেন। অভিনয় ও সমসাময়িক নানা বিষয় নিয়ে ফেসবুকে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।

আনন্দ আলো: যতো ব্যসৱতা…

ফজলুর রহমান বাবু: গত ১০ জুলাই একটি মঞ্চ নাটকে অভিনয়ের জন্য অষ্ট্রেলিয়ায় যাই। এর নাম ছিলো ‘হোয়াইট হ্যাভেন’। এটি রচনা ও পরিচালনা করেছেন বৃন্দাবন দাস। এতে আরো অভিনয় করেছেন চঞ্চল চৌধুরী, শাহানাজ খুশি, বাউল শিল্পী শফি মন্ডল প্রমুখ। মেলবোর্নে নাটকটি মঞ্চস্থ হয়। প্রবাসী বাঙালিরা নাটকটি দারুন উপভোগ করেছেন।

আনন্দ আলো: কনসার্টেও নাকি গান গেয়েছেন?

ফজলুর রহমান বাবু: মঞ্চ নাটকের পাশাপাশি আমি অস্ট্রেলিয়ার বিভিন্ন কনসার্টে গানও করেছি। এসব কনসার্টে দর্শকদের আনন্দ দেয়ার জন্য আমার জনপ্রিয় গানগুলো পরিবেশন করেছি। আমার পাশাপাশি কনসার্টে আরো গান পরিবেশন করেছেন বাউলশিল্পী শফি মন্ডল ও চঞ্চল চৌধুরী।

আনন্দ আলো: দেশে ফিরেই তো শুটিংয়ে ব্যসৱ হয়ে যাবেন?

ফজলুর রহমান বাবু: হ্যাঁ। আগামী ৫ আগস্ট থেকে নিয়মিত অভিনয় শুরু করব। এরই মধ্যে ধারাবাহিক নাটকগুলোর শুটিং শুরু হয়েছে। কিন্তু আমি অস্ট্রেলিয়ায় থাকার কারণে শুটিংয়ে অংশ নিতে পারি নাই।  তবে দেশে ফিরেই প্রচার চলতি ধারাবাহিকগুলোর শুটিং শুরু করব।

আনন্দ আলো: আপনার অভিনীত কোন কোন ধারাবাহিক প্রচার হচ্ছে?

ফজলুর রহমান বাবু: আমার অভিনীত বেশকিছু ধারাবাহিক নাটক বিভিন্ন চ্যানেলে প্রচার হচ্ছে। এগুলো হচ্ছে শামীম জামানের ‘ঝামেলা আনলিমিটেড’, ফজলুর রহমানের ‘জীবনের অলিগলি’, আল হাজেনের ‘অলসপুর’, রিজওয়ান খানের ‘সহযাত্রী’, সাইদুর রাসেলের ‘অষ্টধাতু’ প্রভৃতি। এছাড়া ‘ভালোবাসা.কম’ নামে একটি নতুন ধারাবাহিকের কাজ রমজান মাসেই শুরু করেছি। খুব শিগগিরই এর প্রথম অংশের শুটিং শেষ করে প্রচার শুরু হবে।

আনন্দ আালো: চলচ্চিত্রের কী খবর?

ফজলুর রহমান বাবু: বর্তমানে আমি দুই পর্দাতেই অভিনয় করছি। ছোটপর্দার পাশাপাশি আমি বেশ কয়েকটি ছবিতে অভিনয় করছি। এগুলো হচ্ছে- মিজানুর রহমানের ‘নুরু মিয়া ও তার বিউটি ড্রাইভার’, প্রসূন রহমানের ‘ঢাকা ড্রিম’, সালাউদ্দিন লাভলুর ‘স্বপ্নজাল’ প্রভৃতি।

অর্ষার হ্যাটট্রিক

অভিনেত্রী নাজিয়া হক অর্ষা সম্প্রতি তিনটি ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় শুরু করেছেন। এগুলো হচ্ছে- সকাল আহমেদের ‘ফুলমোহন রাজবাড়ী’, সাজ্জাদ হোসেন দোদুলের ‘অচিন সময়’ এবং ‘মিস্টার এ্যান্ড মিসেস চৌধুরী’। বর্তমানে অর্ষা ‘মিস্টার এ্যান্ড মিসেস চৌধুরী’ ধারাবাহিকের শুটিং নিয়ে ব্যসৱ রয়েছেন। এতে দেখা যাবে, কিছু ব্যাচেলর ছেলেমেয়ে একটি বাড়ির পাশাপাশি ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়ে থাকে। প্রায় তাদের মধ্যে নানা বিষয় নিয়ে ঝগড়া হয়। তখন ছেলে ভাড়াটিয়ারা মিস্টার চৌধুরীকে অভিযোগ করেন। অন্যদিকে, মেয়ে ভাড়াটিয়ারা মিসেস চৌধুরীকে অভিযোগ করেন। একপর্যায়ে মিসেস চৌধুরী বাড়িতে নারী আন্দোলন গড়ে তোলেন। এভাবেই এর গল্প এগিয়ে যাবে। এদিকে, ‘ফুলমোহন রাজবাড়ী’ ধারাবাহিকের শুটিং চলতি মাস থেকে শুরু হবে। পাশাপাশি অর্ষা উত্তরায় ‘অচিন সময়’ ধারাবাহিকেরও শুটিং করছেন। এতে অর্ষার বিপরীতে অভিনয় করছেন শ্যামল মওলা। গ্রামীণ সমাজের প্রেক্ষাপটে এ ধারাবাহিকের গল্প গড়ে উঠেছে।

উল্লেখ্য, অর্ষা চ্যানেল আইতে প্রচারিত দেশের বহুল আলোচিত টিভি ধারাবাহিক ছোটকাকুতে নিয়মিত অভিনয় করে চলেছেন।

নীলার জলবউ!

‘টেলিছবির গল্পটা দারুণ। আর চরিত্রটাও অনেক সুন্দর।’ সম্প্রতি কক্সবাজার থেকে মুঠোফোনে এভাবেই বললেন- অভিনয়শিল্পী ও লাক্স-চ্যানেল আই তারকা নীলাঞ্জনা নীলা। টেলিছবির নাম ‘জলবউ’। রচনা ও পরিচালনা করেছেন মাহমুদ দিদার। নীলা বলেন, ‘পানির ওপরে পুরো শুটিং করেছি। বৃষ্টি তো ছিলোই। সঙ্গে নানা ধরনের ঝক্কিঝামেলাও ছিলো। তারপরও কাজটা করতে ভালো লেগেছে। কারন গল্পটা অসাধারণ। দেশের অনেক জায়গায় শুটিং করেছি, কিন্তু কক্সবাজারে শুটিং করার অভিজ্ঞতা আমার এটাই প্রথম ছিলো। তাই অন্য রকম অনুভূতি কাজ করেছে।’ নীলা ছাড়াও টেলিছবিতে অভিনয় করেছেন শতাব্দী ওয়াদুদ, কুমকুম হাসান, এ কে আজাদ, সানজিদ খান প্রিন্স প্রমুখ। টেলিছবির গল্প প্রসঙ্গে দিদার বলেন, জল ও জঙ্গলের গল্প। যেখানে জলদস্যুতা, মানবিকতা, প্রেম সবই দেখা যাবে। টেলিছবিটি চ্যানেল আইতে প্রচার হবে বলে নির্মাতা সূত্রে জানা যায়।