Home বইমেলা প্রতিদিন বাংলা ভাষার দেশে বিদেশী ভাষার সাইন বোর্ড কেন?

বাংলা ভাষার দেশে বিদেশী ভাষার সাইন বোর্ড কেন?

SHARE
10-Feb

বিশেষ প্রতিনিধি
মাতৃভাষার জন্য যুদ্ধ করেছি আমরা। কাজেই মাতৃভাষার মর্যাদা রক্ষায় এখনও কি আন্দোলন করতে হবে? দেশের সংবিধানে স্পষ্ট ভাবে লেখা রয়েছে ‘প্রজাতন্ত্রের ভাষা হইবে বাংলা’। অথচ সর্বস্তরে এখনও বাংলা ভাষা যথার্থ মর্যাদা পায়নি। আমরা বাংলায় কথা বলি। লিখিও বাংলায়। কিন্তু সবাই কি তা করি? একুশে বইমেলা এলেই ঢাকায় অফিস আদালতের সাইনবোর্ড নিয়ে কথা ওঠে। এবারও বইমেলার শুরুতে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন জোরে-শোরে অফিস আদালতের সাইন বোর্ড নিয়ে এক ধরনের হইচই শুরু করে দিয়েছিলেন। প্রচার মাধ্যমে তার জবানীতে প্রকাশিত খবর পড়ে ধারনা করা হয়েছিল এবার হয়তো সত্যি সত্যি কাজের কাজ হবে। ঢাকা শহরের রাস্তার পার্শ্বে অফিস আদলতের সামনে বিদেশী ভাষার সাইনবোর্ড থাকবে না। কিন্তু কথা ঐ পর্যন্তই। কাজের কাজ কিছুই হয়নি। ঢাকায় প্রতিটি রাস্তার পার্শ্বে অফিস আদালতের সামনে বিদেশী ভাষার সাইনবোর্ড আগের মতোই আছে। একটা সাইনবোর্ডও বাংলায় রূপান্তর করা হয়নি।
আমরা মনে করি, অফিস আদালতের সামনে বাংলায় সাইনবোর্ড থাকলেই যে প্রকৃত অর্থে মাতৃভাষাকে শ্রদ্ধা জানান হবে তা ঠিক নয়। কিন্তু প্রশ্ন হলো বাংলা ভাষার দেশে বিদেশী ভাষার সাইনবোর্ড কেন? কোন যুক্তিতে বিদেশী ভাষার সাইনবোর্ডের প্রতি আমাদের এতো দরদ? ঠিক আছে, যেখানে বিদেশী ভাষায় সাইনবোর্ড লেখা হয়েছে সেখানে ছোট করে হলেও তো বাংলা ভাষার স্থান হতে পারে। আশাকরি বিষয়টি সকলে ভেবে দেখবেন। মাতৃভাষার জয় হোক।