SHARE

জ্ঞানের মেলা প্রাণের মেলা বইমেলা এখন জমজমাট। আনন্দের খবর, বইয়ের মেলায় প্রকৃত অর্থে বইয়ের বিক্রি বেড়েছে। গতকাল বইমেলার ১৭তম দিনে বিপুল সংখ্যক ক্রেতা-দর্শকের ভীড় ছিল। প্রায় প্রতিটি প্যাভিলিয়ন ও স্টলে পাঠক ভীড় করে বই কিনেছেন। এবার বইমেলার পরিবেশ বেশ খোলামেলা হওয়ায় পাঠক স্টল অথবা প্যাভিলিয়নের সামনে দাঁড়িয়ে দেখে শুনে প্রিয় কবি লেখকের নতুন বই কিনছেন। এবার বইমেলায় এখন পর্যন্ত কবিতার বই বেরিয়েছে বেশী। তবে পাঠক চাহিদায় উপন্যাস রয়েছে সবার শীর্ষে। এছাড়াও ভ্রমণ ও মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক নতুন বইয়ের প্রতি পাঠকের বেশ আগ্রহ রয়েছে। বাংলা একাডেমির স্টলে একাডেমি কর্তৃক প্রকাশিত বিভিন্ন আকারের ডিকশনারির চাহিদা দিনে দিনে বাড়ছে। পাঠকের ভীড় সামলাতে একাডেমি কর্তৃপক্ষ মেলার দুই অংশে মোট ৭টি বিক্রয় কেন্দ্র অর্থাৎ  স্টলের ব্যবস্থা রেখেছে।   প্রিয় পাঠক, জানেন নিশ্চয়ই ছুটির দিন বাদে একুশে বইমেলা প্রতিদিন শুরু হয় বিকেল ৩টায়। শেষ হয় রাত ৮টায়। ছুটির দিনে সকাল ১১টায় বইমেলা শুরু হয়। বিরতিহীন চলে রাত ৮টা পর্যন্ত। একুশে ফেব্র“য়ারি সকাল ৭টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত বইমেলা খোলা থাকবে। মেলায় শতকরা ২৫ ভাগ কমিশনে বই বিক্রি হয়। বাংলা একাডেমির নিজস্ব স্টলে কমিশনের হার শতকরা ৩০।