Home প্রতিবেদন তবুও চলবে স্তালিন!

তবুও চলবে স্তালিন!

SHARE

আলোচনা, সমালোচনা রয়েছে। তাই বলে নাটকতো আর থেমে থাকবে না। নাটক চলছে। প্রিয় পাঠক, বলছি ঢাকায় মঞ্চ পাড়ায় নতুন নাটক ‘স্তালিন’ এর কথা। গেল জুন মাসে প্রথমবারের মতো মঞ্চে এসেই মঞ্চ পাড়ায় হৈ চৈ ফেলে দেয় কামাল উদ্দিন নীলু নির্দেশিত নাটক ‘স্তালিন’। মাঝখানে প্রায় দেড় মাস বিরতি দিয়ে নাটকটি আবার মঞ্চে এসেছে। ১৯ ও ২০ আগস্ট শিল্পকলার মূল মিলনায়তনে নাটকটির দুটি প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়। নাটকটিতে ইতিহাস বিকৃতির অভিযোগ উঠলেও এর নির্দেশক কামাল উদ্দিন নীলু জানিয়েছেন ‘স্তালিন’ এখন থেকে ঢাকার মঞ্চে নিয়মিত ভাবেই উপস্থিত থাকবেন।
সেন্টার ফর এশিয়ান থিয়েটার অর্থাৎ সিএটি থেকে বলা হয়েছে, স্তালিন নাটকটি ক্ষমতাবৃত্তের একটি দৃষ্টান্ত। যেখানে একজন কতৃত্ববাদী শাসক আত্মবিস্তারের অনিবার্যতায় তার চারপাশে চাটুকারের দল জড়ো করেন। কিন্তু এই চাটুকাররাই পয়গাছার মতো তার স্বপ্নকে শেষ করে দেয়। তাকে বিচ্ছিন্ন করে জনমানুষ থেকে। স্তালিন তার কর্মকান্ডের কারণে সহকর্মীদের কাছ থেকে তো বটেই তার পরিবার থেকেও বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েন। ফলে শেষ জীবনে তিনি পুরোপুরি একা হয়ে যান। এক সময় তার মৃত্যু হয়। তারপরও তার ছায়া চারপাশের মানুষকে তাড়িয়ে নিয়ে বেড়ায়।
দশ মিনিট বিরতি সহ আড়াই ঘণ্টার এই নাটকে স্তালিনের ভ‚মিকায় অভিনয় করেছেন শাহাদাত হোসেন। অন্যান্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন, সাবিনা সুলতানা, রায়হান আখতার, এ কে আজাদ, মোহাম্মদ রাফী সুমন, শাওন কুমার দে, শ্রিপ্রা দাস, শান্তুনু চৌধুরী, সুব্রত প্রসাদ বর্মন, মার্জিনা মুনা, কাবেরী জান্নাত প্রমুখ।
স্তালিন চরিত্রে অভিনয়কারী বিশিষ্ট অভিনেতা শাহাদাত হোসেন বলেন, নির্দেশকের সকল নির্দেশ মেনেই আমি চরিত্রটিকে আত্মস্থ করেছি। এজন্য কঠোর পরিশ্রম করতে হয়েছে। স্তালিনের হাটাচলা, অঙ্গভঙ্গি পাইপ টানা থেকে শুরু করে প্রতিটি বিষয়ে আমাকে সতর্ক থাকতে হচ্ছে। পাশাপাশি স্তালিনের রাজনৈতিক বিশ্বাসকে ধারন করতে হয়েছে। নির্দেশকই আমাকে দিয়ে এটা করিয়ে নিয়েছেন। কাজেই আমার অভিনয় যদি ভালো হয়ে থাকে তার সবটুকু কৃতিত্ব নির্দেশক কামাল উদ্দিন নীলুর। কারণ তার দেখানো পথেই আমি হেঁটে চলেছি। তিনিই আমাকে শিখিয়েছেন স্তালিন হিসেবে আমার বডি ল্যাঙ্গুয়েজ কেমন হবে। চারপাশের মানুষের সাথে স্তালিনের ব্যবহার কেমন হবে তাও শিখেছি নির্দেশকের কাছেই।
এক প্রশ্নের জবাবে শাহাদাত হোসেন বলেন, শুরুর দিকে নাটকটির ব্যাপারে অনেকেই আপত্তি তুলেছিলেন। কিন্তু যতই দিন যাচ্ছে নাটকটির প্রতি মানুষের এক ধরনের ভালোবাসা জন্মাচ্ছে। অনেকে নতুন করে স্তালিনকে জানার চেষ্টা করছেন। ফলে আমরা নাটকটিতে আরও ভালো অভিনয় করার প্রেরণা পাচ্ছি!