Home আরোও বিভাগ ইভেন্ট ট্রেসেমে লঞ্চিং আলো ছড়ালেন সুস্মিতা

ট্রেসেমে লঞ্চিং আলো ছড়ালেন সুস্মিতা

SHARE

প্রথম বাঙ্গালি হিসেবে মিস ইউনিভার্স খেতাব অর্জন করেছিলেন কলকাতার সেন পরিবারের মেয়ে সুস্মিতা সেন। বাঙালিদের গর্ব সুস্মিতা পরবর্তীতে বলিউড সিনেমা জগৎ কাঁপিয়েছেন তার দুর্দান্ত অভিনয়ের মধ্যদিয়ে। সেই সুস্মিতা সেন ১৩ সেপ্টেম্বর ঢাকায় এসেছিলেন বিশ্বখ্যাত শ্যাম্পু ব্র্যান্ড ট্রেসেমের বাংলাদেশে লঞ্চিং উপলক্ষ্যে।  সম্প্রতি এই ব্র্যান্ডটি বাংলাদেশের বাজারে নিয়ে আসে ইউনিলিভার বাংলাদেশ লিমিটেড। ট্রেসেমের লঞ্চিং উপলক্ষে ইউনিলিভার আয়োজন করে একটি আন্তর্জাতিক মানের ফ্যাশন শো। এর উদ্বোধন করেন Treseme-5 Tresemme_Card_02_Tawsif_178ইউনিলিভার বাংলাদেশ লিমিটেড-এর ব্র্যান্ড ডিরেক্টর জাভেদ আখতার। আর এই ফ্যাশন শোর প্রধান আকর্ষন ছিলেন সুস্মিতা সেন। নারীরা সাধারণত ঋতুর বৈচিত্রের উপর ভিত্তি করে তাদের চুল সাজিয়ে তোলেন। বিষয়টিকে প্রাধান্য দিয়ে গ্রীষ্ম, বর্ষা, শরৎ, শীত ও বসন্ত এই চারটি ঋতুকে কেন্দ্র করে মনোমুগ্ধকর এই ফ্যাশন শোটির আয়োজন করা হয়। ঢাকায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের হল অব ফেমে অনুষ্ঠিত এই ফ্যাশন শো আলোকিত করতে সুস্মিতা সেন ছাড়াও হাজির হয়েছিলেন ট্রেসেমের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর এবং পৃথিবীর বিখ্যাত হেয়ার আর্টিষ্ট ড্যানিয়েল বাওয়ার। চার ঋতুর আবহে চার ধরনের সাজ নিয়ে ফ্যাশন শোতে উপস্থিত হয়েছিলেন বাংলাদেশের নামীদামি তারকা শিল্পীরা।  প্রতিটি ঋতুর প্রতিনিধিত্ব করেন একজন  খ্যাতিমান তারকা শো স্টপার। সাদিয়া ইসলাম মৌ, বিদ্যা সিনহা মিম ও মেহজাবিন চৌধুরী এই তিন জনপ্রিয় তারকা তিন ঋতুর শো স্টপার ছিলেন। বসন্তের শো স্টপার ছিলেন সুস্মিতা সেন। সুস্মিতা তখন পরেছিলেন নিখিল শান্তনুর বানানো লাল পোশাক। তার চুল সাজিয়েছিলেন ড্যানিয়েল বাওয়ার। যখন লাল পোশাকে নিখুঁত করে সেজে বর্ণাঢ্য এই ফ্যাশন শোতে উপস্থিত হন সুস্মিতা, তখন তিনি মনে করিয়ে দিয়েছিলেন ২১ বছর আগে মিস ইউনিভাস খেতাব জেতা সেই সুস্মিতাকে। এছাড়াও অতিথিদের গানের মুর্ছনায় মোহিত করে রাখেন দেশের জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী এলিটা ও জোহাদ। জমকালো এই আন্তর্জাতিক ফ্যাশন শো উপভোগ করেন এদেশের নামীদামি তারকা ও বিশিষ্টজনেরা।  ট্রেসেমে চুলের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে বিশ্বজুড়ে স্বীকৃত নারীদের আস্থার ব্র্যান্ড। ১৯৪৭ সালে যুক্তরাষ্ট্রের মিসৌরির সেন্ট লুইস-এর এডনা এমে তার নামেই ব্র্যান্ডটি প্রতিষ্ঠা করেন। ট্রেসেমে শুরু থেকেই অত্যন্ত সফলতার সাথে নারীকে তার হেয়ার স্টাইলে স্বাধীনতা দিয়ে আসছে। সর্বোৎকৃষ্ট মানের উপাদান থেকে উদ্ভাবিত ট্রেসেমে শুধু নারীদের কাছেই নয় বিশ্বের বিখ্যাত হেয়ার আর্টিস্টদের কাছেও সমানভাবে গ্রহণযোগ্য। এখন থেকে ট্রেসেমে শ্যাম্পু বাংলাদেশের প্রতিটি জায়গায় নির্ধারিত মূল্যে পাওয়া যাচ্ছে।