Home আরোও বিভাগ ইভেন্ট জিপিএইচ ইস্পাত-এসো রোবট বানাই বিজয়ী দল ‘টিম পেরিসোকোলোপিয়াট’

জিপিএইচ ইস্পাত-এসো রোবট বানাই বিজয়ী দল ‘টিম পেরিসোকোলোপিয়াট’

SHARE

চ্যানেল আই-এর রোবোটিক্স বিষয়ক রিয়েলিটি শো জিপিএইচ গ্রæপ নিবেদিত ‘জিপিএইচ ইস্পাত-এসো রোবট বানাই’ বিজয়ী হয়েছে ‘টিম পেরিসোকোলোপিয়াট’ এবং রানার্সআপ হয়েছে দ্যা আপসিলন। প্রতিযোগিতার সেরা ৪টি দল নিয়ে ২৬ জুলাই বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের হল অব ফেমে অনুষ্ঠিত হয় এর গ্র্যান্ড ফিনালে। গ্র্যান্ড ফিনালে অংশ নেয়া অন্য দুটি দল ‘টিম রিফ্লেক্স’ এবং ‘অপটিমাস প্রাইম এমএলটি’। চ্যাম্পিয়ন দল পুরস্কার হিসেবে পেয়েছে ১০ লক্ষ টাকা এবং রানার্সআপ দল পেয়েছে ৫ লক্ষ টাকা। গ্র্যান্ড ফিনালেতে অংশ নেয়া ৪টি দলের প্রতিটি সদস্যকে একটি করে ল্যাপটপও প্রদান করা হয়। বিজয়ী দুই দলের হাতে পুরস্কার তুলে দেন চ্যানেল আই-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর, পরিচালক ও বার্তা প্রধান শাইখ সিরাজ, জিপিএইচ ইস্পাত গ্রæপের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম, জিপিএইচ ইস্পাত-এর চেয়ারম্যান আলমগীর কবির এবং তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রতিযোগিতার চার বিচারক ড. মো. খলিলুর রহমান, ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ, মেহেদী শামস, ড. এম শমশের আলী এবং অতিথি বিচারক জয়া আহসান। রোবট কম্পিটিশনের বিভিন্ন পারফরমেন্সে অংশ নেন- প্রবীণ অভিনেত্রী দিলারা জামান, চিত্রনায়ক রিয়াজ, ফেরদৌস, সিয়াম, চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা, মাহি, অভিনেত্রী মেহজাবিন প্রমুখ। মারিয়া নূরের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেছেন তাহের শিপন। গ্র্যান্ড ফিনালে পুরো অনুষ্ঠানটি সরাসরি স¤প্রচার করেছে চ্যানেল আই।
উদ্ভাবনী ক্ষমতাসম্পন্ন দেশের লাখো তরুণের স্বপ্নকে হাতের মুঠোয় নিয়ে আসার লক্ষ্যে চ্যানেল আই সিআরআইডি (ইউএসএ)-এর কারিগরি সহযোগিতায় এবং জিপিএইচ গ্রæপের পৃষ্ঠপোষকতায় রোবোটিক্স নিয়ে দেশের প্রথম রিয়েলিটি শো জিপিএইচ গ্রæপ প্রেজেন্স ‘জিপিএইচ ইস্পাত-এসো রোবট বানাই’ শুরু হয় ১০ মাস আগে। আধুনিক প্রযুক্তি ‘রোবট’ বানানোর মধ্য দিয়ে দেশের সকল শ্রেণির উদ্ভাবককে একটি প্যাটফর্মে নিয়ে আসার লক্ষ্যেই এ উদ্যোগ। প্রথমবার আয়োজিত এই রিয়েলিটি শোটি পরিচালিত হয় বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া শিক্ষার্থীদের মাধ্যমে ৫ জনের একেকটি দল নিয়ে। বাছাই পর্বের মাধ্যমে সারা বাংলাদেশ থেকে ৩০টি দল অংশগ্রহণ করে মূল পর্বে। নিজস্ব চিন্তা এবং দর্শকদের পাঠানো আইডিয়া নিয়ে তারা কাজ করেছে ওয়ার্কশপ স্টুডিওতে। ৩৫টি টেলিভিশন পর্ব প্রচার শেষে প্রতিযোগিতার সেরা ৪টি দল নির্বাচিত হয়।