SHARE
KRISHOKER-EID-ANANDA-kurigram

সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হকের লেখায় বার বার উঠে আসা নাগেশ্বরী, ফুলবাড়ি, ভুরুঙ্গামারী প্রভৃতি এলাকার নামগুলো সকলেরই পরিচিত। সৈয়দ হকের শৈশব মিশ্রিত কুড়িগ্রাম জেলার বিভিন্ন এলাকায় জড়ি আছে তাঁর স্মৃতি। ক্ষুধা-মঙ্গাক্রান্ত কুড়িগ্রামের গল্প আমরা শুনেছি গত দশকেও। ‘জাগো বাহে, কোনঠে সবাই!’ যেন নুরুলদীনের এই ডাকেই জেগে উঠেছে সমগ্র কুড়িগ্রাম। জেগে ওঠা, ক্ষুধার বিরুদ্ধে সংগ্রামে জয়ী কুড়িগ্রামের এ কৃষকরা যেন অন্য এক কৃষক। এ কৃষকের চোখে ক্ষুধা জয়ের ধ্যান, দিন পাল্টে দেয়ার প্রত্যয়। কুড়িগ্রামের এই দৃঢ়চিত্তের কৃষকদল মাতিয়েছে এবারের ‘কৃষকের ঈদ আনন্দ’। ‘কৃষকের ঈদ আনন্দ’র এবারের খেলাধুলার অংশ ধারণ করা হয় কুড়িগ্রামের ধরলা নদীর তীরে। বালিশ লড়াই, বউ চি, বউ সাজানো, তৈলাক্ত কলাগাছ বেয়ে উঠা, চর্তুমুখীটান, দড়ি দিয়ে নদী পার, বেলুন ও বল নিয়ে দৌড় প্রভৃতি মজার সব খেলার পাশাপাশি ‘কৃষকের ঈদ আনন্দে’ থাকছে ভাওয়াই সংস্কৃতি নিয়ে পরিবেশনা। এবারের ‘কৃষকের ঈদ আনন্দে’ আরো থাকছে দেশ-বিদেশের চমকপ্রদ ঘটনা নিয়ে বিশেষ প্রতিবেদন। শাইখ সিরাজের পরিকল্পনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানটি প্রচার হবে চ্যানেল আইতে ঈদুল আযহার পরদিন বিকেল সাড়ে ৪টায়।