Home শীর্ষ কাহিনি প্রচ্ছদ মুখ কারা থাকছেন বঙ্গবন্ধু সিনেমায়!

কারা থাকছেন বঙ্গবন্ধু সিনেমায়!

SHARE

রেজানুর রহমান
একটি কবিতা লেখা হবে।
তার জন্য কী আকুল প্রতীক্ষা…
কখন আসবেন কবি?
তেমনি একটি সিনেমা বানানো হবে তার জন্যও শুরু হয়েছে আকুল প্রতীক্ষা।
কখন দেখবো সেই সিনেমা?
সিনেমাটি সাধারন কোনো সিনেমা নয়। একটি দেশের, একটি জাতির সকল প্রেরনার উৎস, স্বাধীনতার মহান স্থপতির জীবন কাহিনী নিয়ে নির্মিত হবে সেই সিনেমা। তার মানে সিনেমাটি হবে একটি দেশের ইতিহাসেরও অংশ।
‘বঙ্গবন্ধু’ নামটিই তো বাংলাদেশ। এই নামে যখন একটি সিনেমা নির্মিত হবে তখন তো প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশের কথাই উঠে আসবে। আর তাই প্রিয় স্বদেশকে সেলুলয়েডের পর্দায় দেখবার জন্য আকুল প্রতীক্ষা শুরু হয়েছে গোটা দেশ জুড়ে। নানা জল্পনা, কল্পনাও শুরু হয়েছে এই সিনেমাকে ঘিরে। একটি দেশ ও জাতির পিতার জীবন কাহিনী নিয়ে কে বানাবেন সিনেমাটি? এই নিয়েও ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়েছিল। শেষে সিদ্ধান্ত হয় উপমহাদেশের বরেন্য চিত্র পরিচালক শ্যাম বেনেগাল বানাবেন এই সিনেমা। এবার আলোচনা শুরু হয়েছে ছবির পাত্র-পাত্রীক কে হবেন তাই নিয়ে।
বঙ্গবন্ধুর জীবন কাহিনী মানেই একটি দেশেরও জীবন কাহিনী। ১৯২০ সলের ১৭ মার্চ গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জন্ম নেওয়া এক কিশোর পরবর্তিতে কিভাবে একটি স্বাধীন দেশের মহান স্থপতি হয়ে উঠলেন, প্রেরনাদীপ্ত সেই ইতিহাস তুলে ধরতে হলে ইতিহাসখ্যাত আরও অনেক বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের কথাও উঠে আসবে। সিনেমার পর্দায় জীবন্ত হয়ে উঠবেন চরিত্রগুলো! কাজেই অধীর আগ্রহ দেখা দিয়েছে দেশের সাধারন মানুষের মাঝেও। বঙ্গবন্ধুর জীবন কাহিনী নিয়ে নির্মিত হবে সিনেমা। কাজেই কে হবেন বঙ্গবন্ধু? তিনি কি দেশের কোনো অভিনেতা? নাকি অন্য দেশের? এই নিয়ে শুরু হয়েছে ব্যাপক জল্পনা-কল্পনা। পাশাপাশি কে হবেন বঙ্গবন্ধুর বাবা-মা? বঙ্গবন্ধুর স্ত্রীর ভূমিকায় কে থাকছেন? দুই কন্যা শেখ হাসিনা, শেখ রেহানার ভূমিকায় কারা থাকছেন এই নিয়েও ব্যাপক আগ্রহ দেখা দিয়েছে। বঙ্গবন্ধুর জীবন কাহিনীতে অবশ্যই থাকবেন জননেতা হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী, একে ফজলুল হক, মাওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানী সহ ইতিহাস খ্যাত অনেক নেতা। তাদের চরিত্রই বা কে করবেন? এ নিয়েও জল্পনা-কল্পনা কম হচ্ছে না।
বিভিন্ন প্রচার মাধ্যমে খবর বেরিয়েছে, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে নির্মিতব্য সিনেমার শিল্পী বাছাইয়ের কাজ শুরু হয়েছে। সম্প্রতি ঢাকায় এসেছিলেন ছবিটির পরিচালক শ্যাম বেনেগাল। বিটিভির অডিটোরিয়ামে দেশের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক অভিনয় শিল্পীকে ডেকেছিলেন। একটি সূত্রের মতে ৭০ জনেরও বেশী অভিনয় শিল্পী শ্যাম বেনেগালের সাথে দেখা করেছেন। কঠোর গোপনীয়তায় অনেকটা অডিশন স্টাইলে একটানা তিনদিন অনুষ্ঠিত হয় এই সাক্ষাৎকার পর্ব। শিল্পীদেরকে নির্ধারিত সংলাপ বলতে বলা হয়েছিল। পাশাপাশি তাদের সাক্ষাৎকার পর্বটি মুভি ক্যামেরায় ধারন করা হয়েছে।
একটি সূত্র জানায় ঢাকায় অডিশনের আগে কলকাতা ও মুম্বাইয়ে দুই দফায় অডিশন হয়েছে। ঢাকা, কলাকাতা ও মুম্বাইয়ের অডিশন সমন্বয় করে শিল্পী তালিকা চূড়ান্ত করা হতে পারে বলে জানা গেছে।
সূত্রটি আরও জানায়, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে এই জীবনীভিত্তিক ছবিতে তাঁর জীবনের চারটি অধ্যায় তুলে ধরা হবে। এই চার অধ্যায়ে বঙ্গবন্ধুর চরিত্রে অভিনয়ের জন্য বাংলাদেশ থেকে অডিশন দিয়েছেন তারিক আনাম খান, আরিফিন শুভ, সিয়াম ও দুজন শিশুশিল্পী। বঙ্গবন্ধুর স্ত্রীর চরিত্রের জন্য অডিশন দিয়েছেন শামীমা নাজনীন এবং মা-বাবা চরিত্রের জন্য দিলারা জামান ও খায়রুল আলম সবুজ।
ছবির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট আরেকটি সূত্র জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত কাউকে চূড়ান্ত করা হয়নি। চলতি মাসের মধ্যে ঢাকা, কলকাতা ও মুম্বাইয়ের শিল্পীদের মধ্য থেকে একটা সংক্ষিপ্ত তালিকা করা হবে। আগামী ফেব্রুয়ারি মাসে আরও দুই ধাপে অভিনয়শিল্পী বাছাইয়ের কাজ করা হবে।
সবকিছু ঠিক থাকলে এপ্রিল মাসে শুরু হবে ছবির প্রথম ধাপের শুটিং। এরপর দ্বিতীয় ধাপের শুটিং শুরু হবে সেপ্টেম্বরে। মানিকগঞ্জ ও মুন্সিগঞ্জে সেট বানিয়ে কাজ করা হবে। এরই মধ্যে ঢাকায় কারিগরি দল কাজ শুরু করে দিয়েছে। সেট বানিয়ে তৎকালীন সময়কে তুলে নিয়ে আসা হবে। বাড়িগুলোও সেভাবে তৈরি করা হবে। কলকাতায়ও হবে ছবিটির শুটিং।

বঙ্গবন্ধু চরিত্রটি বাংলাদেশ থেকেই কেউ করবেন কি না, এমন প্রশ্নে জানানো হয়েছে, এটি এখনো নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না। অডিশনের পর যাঁদের সেরা মনে হবে, তাঁদেরই বিভিন্ন বয়সের বঙ্গবন্ধু চরিত্রের জন্য চূড়ান্ত করা হবে। বাংলাদেশেরও হতে পারেন, আবার ভারতেরও কেউ হতে পারেন। ছবিটিতে শতাধিক চরিত্র থাকবে। প্রতিটি চরিত্রের জন্য একাধিক ব্যক্তির অডিশন নেওয়া হচ্ছে।
জানা গেছে, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার চরিত্রের জন্য বাংলাদেশ থেকে জয়া আহসান ও নুসরাত ইমরোজ তিশা অডিশন দিয়েছেন। বঙ্গবন্ধুর চরিত্রের জন্য অডিশন দিয়েছেন বাংলাদেশ থেকে তারিক আনাম খান।
বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে জীবনীভিত্তিক এই ছবির কাস্টিং ডিরেক্টর হিসেবে বাংলাদেশ থেকে আছেন বাহাউদ্দিন খেলন এবং ভারত থেকে শ্যাম রাওয়াত।
ঢাকায় যারা অডিশন প্রক্রিয়ায় অংশ নিয়েছেন তাদের মধ্যে রয়েছেন ফেরদৌসী মজুমদার, রামেন্দু মজুমদার, সৈয়দ হাসান ইমাম, আবুল হায়াত, রাইসুল ইসলাম আসাদ, জাহিদ হাসান, মোশাররফ করিম, রোকেয়া প্রাচী, জয়রাজা, ফেরদৌস, রিয়াজ, কেরামত মাওলা, তৌকীর আহমেদ, তুষার খান, চঞ্চল চৌধুরী, মোহাম্মদ বরো প্রমুখ।
প্রসঙ্গক্রমে বিশিষ্ট নাট্যজন রামেন্দু মজুমদার বলেন, এটাকে ঠিক অডিশন বলা যাবে না। ছবির পরিচালক শ্যাম বেনেগালের সাথে দেখা হয়েছে। কথা হয়েছে… এই আর কী…
তারিক আনাম খান বলেছেন, দেশের প্রথম সারীর প্রায় সকল অভিনয় শিল্পীই এই অডিশনে অংশ নিয়েছেন। কে কোন চরিত্রের জন্য চূড়ান্ত হবেন তা বুঝতে পারিনি। আসলে অডিশন তো একটি প্রক্রিয়া। দেখা যাক শেষ পর্যন্ত কী হয়!
বিটিভির মহাপরিচালক হারুন রশীদ নিজেও অডিশনে অংশ নিয়েছেন। প্রসঙ্গক্রমে বললেন, শিল্পী বাছাইয়ের বিষয়টি একটি প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। কাজেই এখনই কিছু বলা যাবে না। অভিনেতা মোহাম্মদ বারী বলেন, আমাকেও অডিশনে ডাকা হয়েছিল। একটি সংলাপ বলতে বলা হয়। একই সাথে আমার অভিনয় দৃশ্য মুভিতে ধারন করা হয়। আমার ধারনা, বঙ্গবন্ধুর জীবন কাহিনীতে যে চরিত্র গুলো আছে তাদের চেহারার সাথে অভিনয় শিল্পীদের চেহারাগত মিল খোঁজার জন্যই ঢাকার অডিশনের আয়োজন করা হয়।
একটি সূত্র জানিয়েছে, অচিরেই ঢাকায় আরেকদফা অডিশন প্রক্রিয়া শুরু হবে। সেখানে শিল্পী তালিকা চূড়ান্ত হতে পারে।