Home আরোও বিভাগ টিভি গাইড এই সময়ে অপর্ণা

এই সময়ে অপর্ণা

SHARE
OPORNA-GOSH

অভিনেত্রী অপর্ণা ঘোষ। নাটক ও চলচ্চিত্র দুটিতেই সমান পারদর্শী। দুই মাধ্যমেই অভিনয়ে তার সুনাম রয়েছে। তবে নাটকে একটু বেশি ব্যস্ত থাকেন। খন্ড নাটকের পাশাপাশি কাজ করেন ধারাবাহিক নাটকে। স¤প্রতি এই অভিনেত্রী নেপাল থেকে দেশে ফিরেছেন ছয়টি খন্ড নাটকের শুটিং শেষ করে। নাটকগুলো নির্মাণ করেছেন সরদার রোকন। নাটকগুলো হলো- মাসুম শাহরিয়ারের রচনায় ‘হারিয়ে যাওয়া বর্ণমালা’, দয়াল সাহার রচনায় ‘বিকেল কিনে রাখি’, আহসান আলমগীরের ‘বিপন্ন বালিকা’ মেহরাব জাহিদের ‘পৃথিবী পায় তারে’ এবং আসাদুজ্জামান সোহাগের রচনায় ‘ইচ্ছে ঘুড়ির নাটাই’ ও ‘রহস্যজনক’। নেপালে কাজ করা সম্পর্কে জানতে চাইলে এই তারকা বলেন, নেপালে মোট ছয়টি খন্ড নাটক করেছি। এর মধ্যে দুটির পরিচালক সকাল আহমেদ, বাকি চারটি নির্দেশনা দিয়েছেন সরদার রোকন। একটি টিম নিয়ে আমরা গিয়েছিলাম। ফলে সবকটি নাটকেই আমার সহশিল্পী একই রকম। সজল, কল্যাণ আর নিলয় ছিলেন আমার বিপরীতে। এ ছাড়া সহশিল্পী হিসেবে আরও ছিলেন রাইসুল ইসলাম আসাদ, শবনম ফারিয়া, আজমেরী আশা প্রমুখ।’ অপর্ণা অভিনীত ‘পাগলা হাওয়া’ নামের একটি ধারাবাহিক নাটক প্রচার হচ্ছে বাংলাভিশনে। এ ছাড়া রওনক হাসানের পরিচালনায় ‘বিবাহ হবে’ ধারাবাহিকে কাজ করছেন। ধারাবাহিক নিয়ে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘এখন টিভির চেয়ে মনে হচ্ছে ইউটিউবে বেশি নাটক দেখছেন দর্শক। সেটা হোক খন্ড নাটক বা ধারাবাহিক। কিছুদিন আগে ফ্লাইটে একজন দর্শকের সঙ্গে দেখা। তিনি বললেন, আমার অভিনীত প্রচার শেষ হওয়া মওকা মালয়েশিয়া ধারাবাহিকটি তিনি নিয়মিত ইউটিউবে দেখেন। নাটকের পরিণতি কী হলো, তা জানার আগ্রহ রয়েছে তার। ফলে কোন নাটকের কেমন সাড়া আসছে, তা জানা যায় এই ফেসবুক, ইউটিউব থেকেই। সেদিক বিবেচনায় পাগলা হাওয়ার বেশ ভালোই সাড়া মিলছে। এদিকে, চলচ্চিত্রেও কাজ করছেন অপর্ণা। তার ‘ভুবন মাঝি’ সিনেমার পরিচালক ফখরুল আরেফিনের দ্বিতীয় চলচ্চিত্র ‘গন্ডি’তেও আছেন অপর্ণা। এই সিনেমার দুই দিনের শুটিং করেছেন লন্ডনে। বাকি কাজ হবে আগস্ট মাসে বাংলাদেশে। এতে অভিনয় করছেন বাংলাদেশের সুবর্ণা মুস্তাফা, মাজনুন মিজান, কলকাতার সব্যসাচী চক্রবর্তী প্রমুখ। ‘মৃত্তিকা মায়া’, ‘ভুবন মাঝি’, ‘সুতপার ঠিকানা’, ‘মেঘমল্লার’, ‘দর্পন বিসর্জন’, এর মতো প্রশংসিত সিনেমায় অভিনয় করেছেন অপর্ণা।