Home শীর্ষ কাহিনি প্রচ্ছদ মুখ ইমপ্রেস প্রযোজিত রাজু আলীমের প্রথম ছবি ভালোবাসার রাজকন্যা

ইমপ্রেস প্রযোজিত রাজু আলীমের প্রথম ছবি ভালোবাসার রাজকন্যা

SHARE

এই ঈদে মুক্তি পাচ্ছে অরুণ চৌধুরীর কাহিনী অবলম্বনে কবি রাজু আলীম পরিচালিত প্রথম সিনেমা ‘ভালোবাসার রাজকন্যা’। ইমপ্রেস’এর এই ছবিটিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন মৌসুমী হামিদ, শিপন মিত্র, ফারজানা চুমকি সহ অনেকে।
ছবির কাহিনী সংক্ষেপ: ছবির গল্পে দেখা যাবে নায়িকা মৌসুমী হামিদ পৃথিবীতে বেশি দিন বেঁচে থাকতে চায় না। কারণ তার বড় লোক মায়ের কাছ থেকে অনেক দুঃখ পেয়েছে সে। সুন্দরী ও স্মার্ট তার মা বিজনেস পারসন। স্বামী মারা গেছেন অনেক আগে। তারপর আবেগের বশবর্তী হয়ে ভালোবেসে ফেলেন তারই মেয়ের বিশ্ববিদ্যালয়ের সুদর্শন তরুণ শিক্ষককে। মেয়েটির সঙ্গে সেই শিক্ষকের বন্ধুত্ব ছিলো। এটি কোনো ভাবেই মেনে নিতে পারছেন না মৌসুমী হামিদ। সে জন্য পাহাড় থেকে ঝাঁপ দিয়ে জীবন বিসর্জনের জন্য সুদূর নির্জন নেপালে যায় মৌসুমী। নেপালে গিয়ে মৃত্যুর জন্য প্রস্তত মৌসুমী। তিনি সেখানে একটি পাহাড়ে উঠে লাফ দেওয়ার সময় বাংলাদেশ থেকে বেড়াতে যাওয়া আরেক তরুণ শিপন ওই পাহাড়েই ছিলেন। তিনি মৌসুমীকে রক্ষার চেষ্টা করেন। শিপন একটি বনজ ওষুধ কোম্পানিতে চাকরির সুবাদে নেপাল বেড়াতে গিয়েছিলেন। এরপর ঘটতে থাকে নানান নাটকীয় ঘটনা। কাহিনী, সংলাপ ও চিত্রনাট্য করেছেন অরুণ চৌধুরী। অভিনয় করেছেন মৌসুমী হামিদ, শিপন মিত্র, ফারজানা চুমকি, আবিদ রেহান, কাজী রাজু, মিলি বাশার প্রমুখ।

আমার পছন্দের সিনেমা হয়েছে… মৌসুমী হামিদ

রাজু আলীম এর প্রথম সিনেমা ‘ভালোবাসার রাজকন্যা’। অন্যদিকে এই সিনেমাটিও মৌসুমী হামিদ-শিপন মিত্র জুটির প্রথম সিনেমা। মৌসুমীকে সাধারনত যেমন চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যায় তার থেকে এই ছবিতে অনেক ভিন্ন একটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন। মৌসুমী হামিদ বলেন, হঠাৎ করেই চ্যানেল আই থেকে আমাকে ডাকা হলো। সন্ধ্যার পর চ্যানেল আইয়ে গিয়ে দেখি অরুণ দা, রাজু আলীম ভাই আমার জন্য অপেক্ষা করছেন। অরুণ দা আমাকে বললেন রাজু ভাইয়ের ভালোবাসার রাজকন্যা ছবিতে অভিনয় করার জন্য। তারপর তিনি গল্পটি শোনালেন। গল্প ভালো লেগে গেল। ভিন্নধর্মী এক গল্প। কাহিনী, সংলাপ ও চিত্রনাট্য করেছেন অরুণ চৌধুরী। রাজু ভাই এর সাথে এর আগে কখনোই কাজ করা হয়নি। এবারই প্রথম কাজ। নেপালে গিয়েছি। শুটিং করেছি। ঢাকায় ফিরেও খানিক কাজ করলাম। কাজের অভিজ্ঞতা খুবই ভালো। রাজু ভাই খুব গুছিয়ে কাজটি করেছেন। কাজের ব্যাপারে তিনি আমাদেরকে অনেক সহযোগিতা করেছেন। আমরাও অনেক সহযোগিতা করেছি। শুটিং এর সময়টা আমরা এনজয় করেছি। এনজয় না করলে আমরা কাজটা ভালো ভাবে করতে পারতাম না। সহ শিল্পী হিসেবে শিপন অসাধারণ। সে শুধু আমার সহ শিল্পীই নয়, ও আমার ভালো বন্ধুও। ওর সাথে আমার বোঝা পোড়াটা খুবই ভালো। এজন্য একসাথে কাজটা করতে সহজ হয়েছে। রাজু ভাই বেশ মনযোগ দিয়ে ছবিটি বানিয়েছেন। আমরা যারা এই ছবিতে অভিনয় করেছি তারা অভিন্ন সুরে বলতে চাইÑ ছবিটি বেশ ভালো হয়েছে। দর্শক ছবিটি দেখে খুব খুশি হবেন। রাজু ভাই ভবিষ্যতে আরও ভালো সিনেমা বানাক এই কামনা আমার।

এবার সবাই আমাকে আবুল বলে ডাকবে- শিপন মিত্র

ইমপ্রেস টেলিফিল্মের ব্যানারে নির্মিত রাজু আলীম এর প্রথম চলচ্চিত্র ‘ভালোবাসার রাজকন্যা’। এ সিনেমায় কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন শিপন মিত্র। তার চরিত্রের নাম আবুল। একে তো জনপ্রিয় নাট্যকার ও নির্মাতা অরুণ চৌধুরীর কাহিনী, তার ওপর কেন্দ্রীয় চরিত্র। পাশাপাশি রাজু আলীমের প্রথম পরিচালিত ছবিতে অভিনয় করা। মৌসুমী হামিদ-শিপন জুটির প্রথম সিনেমা। ছবিটি ইমপ্রেস টেলিফিল্ম লিমিটেড এর। তাই এরকম একটা ছবিতে থাকতে পারাটা আনন্দের, বললেন শিপন। তিনি আরও বলেন, ভালোবাসার রাজকন্যা চমৎকার একটি সিনেমা। যতœ করে কাজটি করেছি। ছবিটির গল্প ও নির্মাণ ছিল অসাধারণ। ছবিতে আমার চরিত্রের নাম আবুল। ন¤্র-ভদ্র একটি ছেলে। একটা মেয়ে আমাকে দেমাগ দেখিয়ে কথা বলছে আমি তা মেনে নিচ্ছি। এতটাই আবুল যে খাওয়া পেলে সব কিছুই ভুলে যাই। বারবার মেয়েটি যখনই আত্মহত্যা করতে যাচ্ছে। ঠিক তখনই আমি মেয়েটিকে রক্ষা করি।
এটাই ছিল আমাদের প্রেমের রসায়ন। ভালো একটি ছবিতে আভিনয় করতে পেরেছি তাই বেশ ভালো লাগছে। ছবিটি রাজু ভাই বেশ অন্তর দিয়ে বানিয়েছেন। আমার ধারনা ছবিটি খুবই ভালো হয়েছে। এ ছবিতে কাজ করতে পেরেছি তাই বেশ আনন্দ হচ্ছে। দর্শক ছবিটি বেশ পছন্দ করবে। আমি নিশ্চিত এই ছবি দেখার পর সবাই আমাকে আবুল বলে ডাকবে। কারণ এর আগে দেশা : দ্য লিডার ছবি করার পর সবাই আমাকে দেশা বলে ডাকত। পুরো ছবিটা না দেখলে কেউ বুঝতে পারবে না ঘটনা কি হতে যাচ্ছে। শেষের দিকে দর্শকরা চমকে উঠবে এটা আমি নিশ্চিত করে বলতে পারি।