Home আরোও বিভাগ টিভি গাইড ইউটিউবের ঈদ নাটকেও দর্শক খরা

ইউটিউবের ঈদ নাটকেও দর্শক খরা

SHARE

গত কয়েক বছর ধরে টেলিভিশনের চেয়ে ইউটিউবে ঈদের নাটকের দর্শক বেশি থাকে। কিন্তু এ বছর নতুন নাটক কম থাকায় দর্শক কমেছে…

গত বছর দুই ঈদেও জনপ্রিয় নির্মাতা মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজের ইউটিউব চ্যানেলে ডজনখানেক করে নাটক প্রকাশিত হয়। এর বেশিরভাগ নাটকই দর্শক গ্রহণ করে। তবে এ বছর তার চ্যানেলে ছিল না কোনো নতুন নাটক। তিনি বলেন, ‘আমি ক্যারিয়ারের শুরু থেকে আজ পর্যন্ত চ্যানেল ঠিক না করে কাজ করিনি। কিন্তু এবারের ঈদে তা সম্ভব হয়নি। যে সময় আমরা এ কাজগুলো করব ঠিক তখনই করোনার প্রকোপে সবাইকে ঘরবন্দি হয়ে যেতে হয়েছে। তাই কোনো নতুন নাটকের কাজ করতে পারিনি। যারা কিছু নাটক প্রকাশ করেছে তাদের বেশিরভাগ কাজই অনেক আগে শ্যুটিং করা। হয়তো চ্যানেল না পাওয়ায় কাজগুলো তারা এতদিন প্রকাশ করতে পারছিল না। সে কাজগুলোই দেখানো হয়েছে। এজন্য এবার ইউটিউবে দর্শক সেভাবে ছিল না। এর আরও কারণ আছে। ইউটিউবে মূলত নাটক দেখে ইয়ং জেনারেশন আর মধ্যপ্রাচ্যে থাকা বাংলাদেশিরা। করোনার জন্য সবার আর্থিক অবস্থা এতটাই নাজুক যে, তারা ইন্টারনেট কিনে কীভাবে নাটক দেখবে? এজন্য এবার টিভিতে দর্শক বেশি ছিল। কারণ সবাই ঘরের মধ্যে থেকে টিভি সেটের সামনে বসে ফ্রিতেই নাটক দেখেছে। বিজ্ঞাপনও তুলনামূলক কম ছিল। তাই দর্শক টিভিতে নাটক দেখতে বেগ পায়নি।’
এ সময়ের নির্মাতাদের মধ্যে ইউটিউবে সবচেয়ে বেশি ভিউ হয় মিজানুর রহমান আরিয়ান ও কাজল আরেফিন অমির নাটক। তাই তারা সবচেয়ে বেশি খণ্ড নাটক নির্মাণ করেন। অন্য নির্মাতাদের অনেকের কোনো নতুন নাটক এবার ঈদে না থাকলেও এ দুই নির্মাতার একাধিক নাটক ছিল। তারা ইউটিউবে কেমন সাড়া পেয়েছেন শোনা যাক তাদের মুখেই। আরিয়ান বলেন, ‘ঈদে এবার দুটি নতুন নাটক দিতে পেরেছি দর্শকদের। এর মধ্যে ‘উপহার’ নাটকটি ইউটিউবে এবারের ঈদের নাটকগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি সাড়া পেয়েছে। এতে অভিনয় করেছেন আফরান নিশো ও মেহজাবিন চৌধুরী। এটি এবারের ঈদের জন্যই নির্মাণ করা। আরেকটি নাটক ছিল ‘সুইট লাভ স্টোরি’ নামে। অভিনয় করেছেন অপূর্ব ও মেহজাবিন। এটি গত পহেলা বৈশাখের জন্য নির্মাণ করেছিলাম। কিন্তু তখন এটি প্রকাশ করার উপযুক্ত সময় মনে করিনি। এ নাটকটি প্রথম দিকে তেমন সাড়া না পেলেও শেষ কয়েক দিন দেখছি ইউটিউব ট্রেন্ডিংয়ে ওপরের দিকে চলে আসছে। তবে এটা ঠিক যে, এবারের ঈদে অন্য ঈদের তুলনায় দর্শক সাড়া কিছুটা হলেও কম।’
কাজল আরেফিন অমির তিনটি নতুন নাটক এবারের ঈদে তিনটি ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত হয়েছে। তিনি বলেন, ‘তিনটি নাটকের মধ্যে দুটির দর্শক সাড়া আমাকে তুষ্ট করেছে। একটি নাটকের নাম ‘ব্যাচেলর কোয়ারেন্টাইন’। এটি আমার জনপ্রিয় সিরিজ ব্যাচেলরের অন্তর্গত। অভিনয় করেছেন তৌসিফ মাহবুব, সাবিলা নূর, মিশু সাব্বির, শামীম হাসান সরকারের মতো তরুণ অভিনয়শিল্পীরা। এটি ধ্রুব টিভি ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত হয়েছে। আরেকটি নাটকের জন্য দারুণ প্রশংসা পাচ্ছি। এর নাম ‘হঠাৎ দেখা’। অভিনয় করেছেন অপূর্ব ও তানজিন তিশা। এ জুটির মধ্যেই ডিভোর্সের গল্প নিয়ে নির্মাণ করেছি ‘মিসিং’ নাটকটি। অনেক দর্শক এ নাটক নিয়ে গুজব ছড়ানোর চেষ্টা করেছেন যে, এটি অপূর্বের ডিভোর্সের গল্প। কিন্তু এটা তেমন কিছুই নয়। কারণ নাটকটি করেছিলাম গত ডিসেম্বরে। তখন কেউ জানত না যে নাটকটি প্রচারের ঠিক আগেভাগেই বাস্তবে অপূর্বের ডিভোর্স হবে। এজন্য দর্শককে বলতে চাই, আপনারা কেউ একটি নাটকের ট্রেইলার দেখে বা একটি সিন দেখে আমাদের সমালোচনা করবেন না। পুরোটা দেখার পর বিচার করবেন কাজটি কেমন।’