Home আরোও বিভাগ সিনেমা আলোচনায় ইমপ্রেসের চার ছবি

আলোচনায় ইমপ্রেসের চার ছবি

SHARE
faun-haoai

মান সম্মন্ন ছবি নির্মাণে ইমপ্রেস টেলিফিল্ম এর অনন্য ভ‚মিকার কথা সবরেই জানা। ইতিমধ্যে ইমপ্রেস এর একাধিখ নতুন ছবি নির্মিত হয়েছে। যা চলতি বছর ব্যাপক আলোচনার জন্ম দিবে।
ফাগুন হাওয়ায়
ইমপ্রেস টেলিফিল্ম প্রযোজিত আলোচিত ছবি ‘অজ্ঞাতনামা’র পর ফের এই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকে সিনেমা নির্মাণ করেছেন তৌকীর আহমেদ। তার নতুন ছবির নাম ‘ফাগুন হাওয়ায়’। ভাষা আন্দোলনের উপর নির্মিত এই ছবিটিকে বলা হচ্ছে, ২০১৯ সালের সবচেয়ে প্রতীক্ষিত সিনেমাগুলোর একটি। টিটো রহমানের ‘বউ কথা কও’ গল্পের অনুপ্রেরণায় নির্মিত হয়েছে ‘ফাগুন হাওয়ায়’। ছবিতে জুটি বেধে অভিনয় করেছেন সিয়াম আহমেদ ও তিশা। এছাড়াও অভিনয় করছেন বলিউডের অভিনেতা যশপাল শর্মা, আবুল হায়াৎ, আফরোজা বানু, ফারুক হোসেন, সাজু খাদেম, আজাদ সেতু, হাসান আহমেদ প্রমুখ।
ইতি, তোমারই ঢাকা
বাংলাদেশের প্রথম অমনিবাস চলচ্চিত্র ‘ইতি, তোমারই ঢাকা’। ২০১৮ সালে আলোচনায় ছিলো ১১ নির্মাতার এই ছবি! ছবির কাজ শেষ হওয়ার পর আন্তর্জাতিক বিভিন্ন চলচ্চিত্র উৎসবে ঘুরছে ছবিটি। রাজধানী ঢাকাকে থিম ধরে অমনিবাস চলচ্চিত্রটির ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হয়েছে বুসান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে। এছাড়াও ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের চলচ্চিত্র উৎসবে আমন্ত্রণ পেয়েছে ইমপ্রেস টেলিফিল্মের এই ছবি। শুধু তাই নয়, দেশীয় সংবাদপত্রের পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ‘ভ্যারাইটি’র মতো পত্রিকাতেও শিরোনাম হয়েছে ‘ইতি, তোমারই ঢাকা’। নতুন বছরে দর্শক বড় পর্দায় ‘ইতি, তোমারই ঢাকা’ দেখতে পারবেন বলেন জানিয়েছেন অমনিবাস চলচ্চিত্রটির ক্রিয়েটিভ প্রডিউসার ও নির্মাতা আবু শাহেদ ইমন। তিনি জানান, ছবিটি বুসানে ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হওয়ার পর বিভিন্ন দেশের ফেস্টিভালে আমন্ত্রন পেয়েছে এবং এখনো পাচ্ছে। আশা করছি চলতি বছরের যেকোনো সময় ছবিটি বড় পর্দায় মুক্তি দেয়া হবে। ১১ নির্মাতার ১১ টি স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমা নিয়ে এই পূর্ণদৈর্ঘ্য ছবিতে মূলত উঠে এসেছে ঢাকার নিম্নবিত্ত মানুষের জীবন যাপন, তাদের সংগ্রাম ও বেঁচে থাকার নিরন্তর যুদ্ধ। সেই সাথে ঢাকার নিজস্ব এক সংস্কৃতিও তুলে ধরা হয়েছে। ছবিগুলোতে অভিনয় করেছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা, ফজলুর রহমান বাবু ও শতাব্দী ওয়াদুদ প্রমুখ। যে ১১জন ‘ইতি, তোমারই ঢাকা’ নির্মাণ করেছেন তারা হলেন: গোলাম কিবরিয়া ফারুকী, মাহমুদুল ইসলাম, মীর মোকাররম হোসেন, রাহাত রহমান, রবিউল আলম রবি, সৈয়দ সালেহ আহমেদ আহমেদ সোবহান, সৈয়দ আহমেদ সাওকী, তামিন নূর, তানভীর, কৃষ্ণেন্দু চট্টোপাধ্যায় ও নুহাশ হুমায়ূন।
হলুদবনি
চলতি বছরে যেসব ছবি সাড়া ফেলতে পারে, সেগুলোর সম্ভাব্য তালিকায় নাম আছে ইমপ্রেস টেলিফিল্মের আরেক ছবি ‘হলুদ বনি’। ২০১৭ সালে ছবিটির শুটিং শুরুর খবর দিয়ে আলোচনায় আসে। ২০১৮ সালে বড় পর্দায় মুক্তির কথা শোনা গেলেও শেষ পর্যন্ত পোস্ট প্রোডাকশনের জন্য ছবিটি মুক্তি পেতে সময় নেয়। তবে চলতি বছরে বড় পর্দায় মুক্তির কথা মোটামুটি পাকাপোক্ত বলে জানিয়েছে ইমপ্রেস টেলিফিল্ম। তারকা বহুল ‘হলুদ বনি’ যৌথ প্রযোজনার ছবি। ইমপ্রেস টেলিফিল্মের সঙ্গে যৌথভাবে ছবিটির প্রযোজক ভারতের টেলিসিনে অ্যান্ড এন্টারটেইনমেন্ট। সুকান্ত গঙ্গোপাধ্যায়ের ‘হলুদবনি’ উপন্যাস অবলম্বনে ছবিটি যৌথভাবে পরিচালনা করেছেন বাংলাদেশের নির্মাতা তাহের শিপন ও কলকাতার মুকুল রায় চৌধুরী। এর চিত্রনাট্য লিখেছেন পদ্মনাভা দাশগুপ্ত।
হলুদ বনিতে জুটি বেধে অভিনয় করেছেন কলকাতার পরমব্রত চট্টপ্যাধ্যায় ও বাংলাদেশের নুসরাত ইমরোজ তিশা। এছাড়া ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন কলকাতার আরেক জনপ্রিয় অভিনেত্রী পাওলী দাম।
চলতি বছরে মুক্তি প্রতীক্ষিত ইমপ্রেস টেলিফিল্মের এই চারটি ছবির মধ্য শুধু তৌকীর আহমেদ পরিচালিত ‘ফাগুন হাওয়ায়’ ছবিটির মুক্তির তারিখ চ‚ড়ান্ত হয়েছে। ৮ ফেব্রæয়ারি ছবিটি সারাদেশে মুক্তি পাবে।


বিউটি সার্কাস

beauty-circus

গেল বছরে দেশের প্রেক্ষাগৃহে চমক দেখিয়েছেন অভিনেত্রী জয়া আহসান। তার অভিনীত ও প্রযোজিত ‘দেবী’ ২০১৮ সালের বক্স অফিসের শীর্ষস্থানটি দখলে নেয়। বছর শেষে এল নতুন বছর। এবারও চমক দেখাতে বড় পর্দায় আসছেন দেবী খ্যাত জয়া। যার পরবর্তী ছবির নাম ‘বিউটি সার্কাস’। ২০১৯ সালে মুক্তির প্রতীক্ষায় থাকা অন্যতম আলোচিত ছবির নাম এটি। সরকারি অনুদান প্রাপ্ত মাহমুদ দিদারের পরিচালনায় ছবিটির প্রযোজক ইমপ্রেস টেলিফিল্ম। ছবির নাম ভ‚মিকা ‘বিউটি’ চরিত্রে অভিনয় করেছেন জয়া আহসান। আর নায়ক ‘রংলাল’ চরিত্রে অভিনয় করেছেন ‘ঢাকা অ্যাটাক’ খ্যাত অভিনেতা এবিএম সুমন। এছাড়া বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন ফেরদৌস, তৌকীর আহমেদ, গাজী রাকায়েত প্রমুখ। চাঁপাই নবাবগঞ্জ ও মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া থানার প্রত্যন্ত গ্রামে সার্কাসের সেট নির্মাণ করে হয়েছে ছবির শুটিং। ধারনা করা হচ্ছে, ২০১৯ সালের আলোচিত ছবির তালিকায় অন্যতম জায়গায় থাকবে ইমপ্রেস টেলিফিল্মের এই ছবিটি। জয়া ও এবিএম সুমন ছাড়াও ছবিতে দেখা যাবে তৌকীর আহমেদ ও ফেরদৌসের মতো তারকা অভিনেতাদেরও।