Home প্রতিবেদন আনন্দ আলো চারুনীড়ম কাহিনীচিত্র উৎসব পুরস্কারের জন্য যারা মনোনয়ন পেয়েছেন

আনন্দ আলো চারুনীড়ম কাহিনীচিত্র উৎসব পুরস্কারের জন্য যারা মনোনয়ন পেয়েছেন

SHARE
A-ALo-Charunirom

সম্প্রতি পাবলিক লাইব্রেরী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত আনন্দ আলো চারুনীড়ম কাহিনীচিত্র উৎসবের পর ১৪টি বিভাগে মনোনায়নপ্রাপ্ত কাহিনীচিত্রের নাম ঘোষনা করা হয়েছে। বিচারক মন্ডলীর রায়ের ভিত্তিতে আগামী ঈদুল ফিতরের পর আনুষ্ঠানিকভাবে পুরস্কারপ্রাপ্ত কাহিনী চিত্রের বিভিন্ন শাখায় শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন কারীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হবে। উৎসবে পুরস্কারের জন্য মনোনীত কাহিনীচিত্র সমূহ:
শ্রেষ্ঠ কাহিনী: ফেরারী ফরহাদ (বাতিওয়ালা), মেজবাহ উদ্দিন সুমন (ধাঙর), ইফফাত আরেফিন মাহমুদ তন্বী (শিখার কথা), ইশতিয়াক আহ্মেদ (নাইট ওয়াচম্যান), সুমন আনোয়ার (বিসর্জন-৭১)
শ্রেষ্ঠ চিত্রনাট্য: রাজিবুল এহসান (অতঃপর মঞ্জুলিকা), গোলাম সোহরাব দোদুল (সুগন্ধি বোর্ডিং ও তুমি), রাকেশ বসু (পুতুল কথা), মাহমুদ নিয়াজ চন্দ্রদ্বীপ (বোধোদয়), মেসবাহ উদ্দিন সুমন (ধাঙর)
শ্রেষ্ঠ চিত্রগ্রাহক: নিয়াজ মাহবুব (বিসর্জন-৭১), সুমন হোসাইন (কতটা পথ পেরুলে), কমল চন্দ্র দাস (সংযোজন), নাইম ফুয়াদ (পুতুল কথা), কামরুল ইসলাম শুভ (ধাঙর)
শ্রেষ্ঠ চিত্রসম্পাদক: মুশফিকুর রহমান চন্দন (ধাঙর), আমিনুল ইসলাম ইমরান (সুগন্ধি বোর্ডিং ও তুমি), অমিতাভ মজুমদার (কতটা পথ পেরুলে), রাশেদ রাব্বি (পুতুল কথা), সৈকত খন্দকার (অতঃপর মঞ্জুলিকা)
শ্রেষ্ঠ আবহসঙ্গীতকার: খালিদ ফেরদৌস (অমিত্রাক্ষর), তরিকুল ইসলাম (পুতুল কথা), রামিজ রাজু (অতঃপর মঞ্জুলিকা), বিপ্লব বড়–য়া (বাতিওয়ালা), পিন্টু ঘোষ (নিশীথে)
শ্রেষ্ঠ রূপসজ্জাকারী: জাহাঙ্গীর ভ‚ইয়া (সুর সতীন), রতন সরকার (ধাঙর), রতন সরকার (বক্করের ট্র্যানজেস্টর), হৃদয় (বিসর্জন-৭১), সরদার সালাম (অতঃপর মঞ্জুলিকা)
শ্রেষ্ঠ অভিনেতা (প্রধান চরিত্র): শ্যামল মওলা (মন যমুনায় ঢেউ), আফরান নিশো (ধাঙর), খন্দকার লেনিন (বক্করের ট্র্যানজেস্টর), জিয়াউল ফারুক অপূর্ব (ছোট্ট পাখীর বাসা), সুজাত শিমুল (এক রাত্রি)
শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী (প্রধান চরিত্র): মৌসুমি হামিদ (পুতুল কথা), জাকিয়া বারী মম (ধাঙর), অপর্না ঘোষ (ভার), অপি করিম (নিশীথে), মেহজাবিন চৌধুরী (ছোট্ট পাখীর বাসা)
শ্রেষ্ঠ অভিনেতা (পার্শ্ব চরিত্র): সুজাত শিমুল (কতটা পথ পেরুলে), দুখু সুমন (বোধোদয়), রামিজ রাজু (অতঃপর মঞ্জুলিকা), হিমে হাফিজ (ধাঙর), মিলন ভট্টাচার্য (বক্করের ট্র্যানজেস্টর)
শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী (পার্শ্ব চরিত্র): তমালিকা কর্মকার (সংযোজন), নাজনিন চুমকি (অতঃপর মঞ্জুলিকা), তাসনুভা তিশা (ল্যাবরেটরী), শিল্পী সরকার অপু (পুতুল কথা), রিনি করিম (এক রাত্রি)
শ্রেষ্ঠ পরিচালক: তুহিন হোসেন (কতটা পথ পেরুলে), রাকেশ বসু (পুতুল কথা), মাহমুদ নিয়াজ চন্দ্রদ্বীপ (বোধোদয়), শুভ্র আহমেদ (অতঃপর মঞ্জুলিকা), সাজ্জাদ সুমন (ধাঙর)
শ্রেষ্ঠ কাহিনীচিত্র: অতঃপর মঞ্জুলিকা (শুভ্র আহমেদ), পুতুল কথা (ধ্রæব ঘোষ), কতটা পথ পেরুলে (ইরেশ যাকের), ধাঙর (সৈয়দ আশিক রহমান), বাতিওয়ালা (জিয়া উদ্দিন খান)
চিত্রকুসুম (অভিনয়): আইনুন পুতুল (অতঃপর মঞ্জুলিকা), তানজিন তিশা (বোধোদয়), জীবন রয় (মন যমুনায় ঢেউ), তাসনুভা তিশা (ল্যাবরেটরী), তানিন তানহা (মন যমুনায় ঢেউ)
চিত্রকুসুম (পরিচালক): লিপি আইচ (সংযোজন), প্রীতি দত্ত (বক্করের ট্র্যানজেস্টর), ম্যাক কামাল (ভার), হাসান রেজাউল (ল্যাবরেটরী), হাবিব শাকিল (বাবা আসবেন)।