Home টি-২০ আড্ডা ভাইরে আমি একটু অলস প্রকৃতির!-আ.খ.ম হাসান

ভাইরে আমি একটু অলস প্রকৃতির!-আ.খ.ম হাসান

SHARE
a-kha-m-hasan

মোহাম্মদ তারেক

আনন্দ আলো: আপনি কি হাসান?

আ খ ম হাসান: হ্যাঁ। আমি হাসান। আ খ ম হাসান।

আনন্দ আলো: এতকিছু থাকতে অভিনয়ে এলেন কেন?

আ খ ম হাসান: ছোটবেলা থেকে অভিনয়ের প্রতি এক ধরনের পাগলামি ছিল। তাই সব কাজ বাদ দিয়ে অভিনয় করছি।

আনন্দ আলো: জীবনের মোড় ঘুরিয়ে দেয় যে কাজ অর্থাৎ নাটকটি…

আ খ ম হাসান: সালাউদ্দিন লাভলুর ‘রঙের মানুষ’ নাটকে রাখাল চরিত্রটি আমার অভিনয় জীবনের মোড় ঘুরিয়ে দেয়।

আনন্দ আলো: শোবিজে নাটকের সঙ্গে ফাটক বলে একটা কথা চালু আছে। এই ফাটক মানে আসলে কী?

আ খ ম হাসান: একসময় বাংলাদেশের মানুষ নাটক-যাত্রাকে ভালো চোখে দেখত না। সেই দৃষ্টিকোণ থেকে ফাটক কথাটি আসে। আসলে ফাটক মানে কিছুই না।

আনন্দ আলো: একদিন হঠাৎ দেখলেন আপনি ছেলে থেকে মেয়ে হয়ে গেলেন। তখন কী করবেন?

আ খ ম হাসান: মেয়েরা যেভাবে কথা বলে, চলাফেরা করে আমি সেভাবেই চলাফেরা শুরু করে দেব।

আনন্দ আলো: দেশের টিভি দেখেন?

আ খ ম হাসান: দেখব না কেন? আমাদের এতগুলো টিভি চ্যানেল। অবশ্যই দেশের টিভি চ্যানেল দেখি। আমাদের নাটকগুলো দেখি। ভালো কিছু হলে ভালো লাগে।

আনন্দ আলো: ধরা যাক কোনো গ্রামে আপনি শুটিং করতে গেলেন। ক্যামেরা, লাইট, অ্যাকশন বলার সঙ্গে আপনার সামনে একটি সিংহ হাজির হয়ে গেল, তখন আপনি কী করবেন?

আ খ ম হাসান: এদিক ওদিক তাকিয়ে দৌড়ই দেব।

আনন্দ আলো: আপনাকে একদিনের জন্য প্রধানমন্ত্রী বানিয়ে দেয়া হলো। প্রথমে কোন্‌ কাজটি করবেন?

আ খ ম হাসান: মানুষের কল্যাণের জন্য যে কাজগুলো করা উচিত সেই কাজগুলো করব।

আনন্দ আলো: বেশির ভাগ নাটকে আপনাকে কমেডি চরিত্রে দেখা যায় কেন?

আ খ ম হাসান: শুধু কমেডিয়ান কেন সিরিয়াস চরিত্রেও অভিনয় করেছি।

আনন্দ আলো: কৌতুক আর যৌতুকের মধ্যে পার্থক্য কী?

আ খ ম হাসান: কৌতুক হাসায় আর যৌতুক খুবই পীড়াদায়ক অন্যায় একটা জিনিস।

আনন্দ আলো: আপনার অভিনয় দেখে অনেকে বিনোদন পান। আপনার বিনোদন কীসে?

আ খ ম হাসান: আমার বিনোদন তাদেরকে দেখে যারা আমার অভিনয় দেখে আনন্দ পান।

a-kha-m-hasan-1আনন্দ আলো: আপনার পাঁচটি ভালো গুণের কথা বলুন?

আ খ ম হাসান: আমি মিথ্যা কথা না বলার চেষ্টা করি। অল্পতে মানুষকে বুঝতে পারি। আমার চট করে রাগ হয় না। মানুষের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করি না। আমি ভালো অভিনয় করতে পারি।

আনন্দ আলো: আপনার পাঁচটি খারাপ গুণের কথা বলুন?

আ খ ম হাসান: সহজেই সবার সঙ্গে মিশতে পারি না। আমার আপনে থেকে তুমি, তারপর তুই এ যেতে পাঁচ বছর লেগে যায়। মিথ্যা কথা বলতে পারি না। ভাইরে… আমি একটু অলস প্রকৃতির।

আনন্দ আলো: সিনেমায় নায়ক চরিত্রে প্রসৱাব পেলে কী করবেন?

আ খ ম হাসান: ভাই, আমাকে মাফ করেন। আমি নায়ক হতে চাই না।

আনন্দ আলো: সালাউদ্দিন লাভলুর ‘রঙের মানুষ’ ধারাবাহিক নাটকে রাখাল চরিত্রে অভিনয় করেন। বাসৱবে রাখাল হয়ে গেলে কী করবেন?

আ খ ম হাসান: রাখাল হয়ে গেলে গরু রাখবো। আর গাছের তলায় বসে বাঁশি বাজাবো।

আনন্দ আলো: হাড় ভাঙলে জোড়া লাগে, মন ভাঙলে জোড়া লাগে না কেন?

আ খ ম হাসান: হাড় দেখা যায়, মন দেখা যায় না। সেজন্য জোড়া লাগে না।

আনন্দ আলো: এমন একটা কথা বলুনতো, যা সবাই জানে?

আ খ ম হাসান: খিদা লাগলে খেতে হয়।

আনন্দ আলো: কোকিল কাকের বাসায় ডিম পাড়ে কেন?

আ খ ম হাসান: কাক ডিমের ব্যবসা করে না বলে।

আনন্দ আলো: পাখি আকাশে উড়ে আবার বিমানও আকাশে উড়ে। এদের উড়ার মধ্যে পার্থক্য কী?

আ খ ম হাসান: পার্থক্যটা পেছনে। একজনের পেছনে আগুন জ্বলে, অন্যজনের জ্বলে না।

আনন্দ আলো: এডিস মশা শুধু দিনে কামড়ায়, রাতে কী করে?

আ খ ম হাসান: রাতে টিভি দেখে। মশা বলে কী ওদের কোনো সাদ আহ্লাদ নেই।