Home বইমেলা প্রতিদিন অভিযোগ নয় একটি মতামত

অভিযোগ নয় একটি মতামত

SHARE

রেজানুর রহমান:  অভিযোগ নয়, একটি মতামত দিতে চাই একুশে বইমেলা কর্তৃপক্ষকে। তার আগে ছোট্ট একটা গল্প বলি। একটি গ্লাশে পানি আছে। গ্লাশটি সম্পর্কে দুটি পক্ষকে মন্তব্য করতে বলা হলো। এক পক্ষের মন্তব্যণ্ডগ্লাশটি খালি। অন্যপক্ষের মন্তব্যণ্ডগ্লাশটি অর্ধেকভরা। গল্পটি এখানেই শেষ। আমরা অর্ধেক ভরার পক্ষে। কারণ অর্ধেক ভরা বললে বুকে সাহস জাগে। আর কিছু পানি দিলে গ্লাশটি ভরে যাবে।  গত দু’দিন ধরে আমরা একটি সমস্যার মোকাবিলা করছি। সমস্যাটি হলো আনন্দ আলো বইমেলা প্রতিদিনণ্ডএ নাকি শুধুই ভালো খবর ছাপা হচ্ছে। কারও কারও মন্তব্যণ্ড আমরা নাকি তেলে মাথায় তেল দিচ্ছি। বইমেলার ৪দিন চলে গেল এখনও কেন মেলার স্টল বানানো নিয়ে ‘খুটখাট’ চলছে। লেখককুঞ্জের কাঠামো দাঁড় করানো আছে। এরপর আর কোনো ‘নড়াচড়া’ নাই। প্রেসকর্ণার এখনও কেন হলো না। মেলার মাঠে কেন ঘাস নাই। ধুলোর কথা কেন লেখা হচ্ছে না। সব চেয়ে বড় কথা মেলায় পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা এখনও হয়নি। অথচ আমরা এ ব্যাপারে কিছুই লিখছি না।  যারা আমাদেরকে এসব কথা বলেছেন তারা সকলেই আমাদের শুভাকাঙ্খী, সুহৃদ, বন্ধু। তাই তাদের বোঝানোর জন্য বলেছিণ্ড ভাই আমাদের ছোট্ট একটি পত্রিকা। নেতিবাচক কথা এই পত্রিকায় ছাপাতে চাই না। তাদের অনেকেই আমাদের যুক্তি মেনে নিয়েছেন। তবে বলেছেন অভিযোগ নয়, প্রস্তাব আকারেও তো লেখা যায়। সেই সূত্র ধরেই একুশে বইমেলা সম্পর্কে আমাদের কিছু মতামত দিতে চাই।  মেলার ৪দিন চলে গেল। এখন আর মেলায় ‘খুটখাট’ শব্দ থাকা উচিৎ নয়। নিরাপত্তার স্বার্থেই সন্ধ্যার পর মেলার দুই অংশেই পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা থাকা উচিৎ। মেলায় ধুলা নিবারণের জন্য পানি ছিটানো হচ্ছে ঠিকই। কিন্তু অনেক জায়গায় আবর্জনা পরিস্কার হচ্ছে না। বইমেলার সুষ্ঠু পরিবেশের স্বার্থে বিষয়গুলোর সুরাহা হওয়া জরুরি।