Home আরোও বিভাগ টিভি গাইড যেভাবে আছি সে ভাবেই থাকতে চাই

যেভাবে আছি সে ভাবেই থাকতে চাই

SHARE
Tisha

জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা। বিশেষ দিনের নাটকেই তাকে বেশি দেখা যায়। সিনেমাতেও রয়েছে তার সরব পদচারণা। কথা হলো তার সঙ্গে-
আনন্দ আলো: বর্তমানে কী কাজ করছেন?
তিশা: স¤প্রতি ‘আলীদের অষ্ট খÐ’ নামে একটি সচেতনতামূলক ধারাবাহিক নাটকের শুটিং শেষ করলাম। নাটকটি বিটিভিতে প্রচার হবে। এছাড়াও বেশ কয়েকটি নাটক নিয়ে ব্যস্ত রয়েছি।
আনন্দ আলো: আপনাকে নাটকে কম দেখা যায়-
তিশা: বিষয়টি তেমন নয়। আসলে আমি বিশেষ দিনের নাটক ছাড়া নাটকে কম অভিনয় করছি ইদানীং। যার ফলে অনিয়মিত মনে হয়। তাছাড়া বিজ্ঞাপনেও কাজ করেছি।
আনন্দ আলো: আপনার দৃষ্টিতে বর্তমান নাটকের গল্পের ভিন্নতা কেমন?
তিশা: সব সময়ই ভালো মন্দ মিলিয়ে কাজ হতো। তবে আগের চেয়ে আমাদের নাট্যাঙ্গনের অবস্থা বেশ ভালো। নাটকের গল্প এখন ভালো হচ্ছে। আশা করছি আরও ভালো হবে আগামীতে।
আনন্দ আলো: শনিবার বিকালে ও ফাগুন হাওয়া ছবির কাজ কতদূর এগিয়েছে?
তিশা: ‘শনিবার বিকালে’ ছবির শুটিং শেষ। এখন পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ চলছে। ‘ফাগুন হাওয়া’ ছবিরও শুটিং শেষ। ডাবিং বাকি আছে। শিগগির এটাও শেষ হয়ে যাবে। অন্যদিকে ‘হলুদবনি’ নামে আরও একটি ছবির শুটিং প্রায় শেষ পর্যায়ে।
আনন্দ আলো: দর্শক এখন ইউটিউব নির্ভর হয়েছে। বিষয়টিকে কীভাবে দেখছেন?
তিশা: টেলিভিশন ও ইউটিউব উভয় মাধ্যমেই দর্শক নাটক দেখছেন। আমি টেলিভিশনে নাটক দেখার চেষ্টা করি। যারা ব্যস্ততার কারণে টেলিভিশনে নাটক দেখতে পারছে না তারাই ইউটিউবে নাটক দেখে থাকেন। ইউটিউবে ইচ্ছামতো নাটক দেখতে পারেন বলে দর্শক এ মাধ্যমেই বেশি নাটক দেখেন। বিষয়টি ইতিবাচক। তাছাড়া প্রযুক্তির উৎকর্ষকে স্বাগত জানাতেই হবে।
আনন্দ আলো: ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কী?
তিশা: ভবিষ্যৎ নিয়ে ভাবি না। বর্তমানে যেভাবে আছি তা নিয়েই সন্তুষ্ট। তবে ভালো ভালো কাজ করতে চাই। দর্শক যেন তৃপ্ত হয় সেরকম কাজ করতে চাই। এ লক্ষ্যেই পথ চলছি।