Home প্রতিবেদন ভিডিওতে বিজয়ের গান

ভিডিওতে বিজয়ের গান

SHARE
Bijoy-Song

প্রায় ২০ বছর আগে ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধের গানের ভিডিও নির্মাণ করেছিলেন বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও চলচ্চিত্র নির্মাতা নাসির উদ্দীন ইউসুফ বাচ্চু। দীর্ঘ বিরতির পর আবারও দেশ ও মুক্তিযুদ্ধের ওপর তৈরি একটি গানের ভিডিও নির্দেশনা দিলেন এ নির্মাতা। ‘বিজয়ের গান’ শিরোনামের এই গানটি লিখেছেন আরেক সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ফরিদুর রেজা সাগর। এতে কণ্ঠ দিয়েছেন এ সময়ের জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী কোনাল। গানের ভিডিওটি নির্মাণ প্রসঙ্গে নাসির উদ্দীন ইউসুফ বলেন, দীর্ঘদিন কোনো গানের ভিডিও নির্মাণ করা হয়নি। এবার বন্ধু সাগর গানটি লিখে আমাকে ধরিয়ে দিয়েছে ভিডিও করার জন্য। এটি দেশের গান, বিজয়ের গান। এ জন্য বেশ আনন্দ নিয়েই কাজটি করেছি। ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যান, শিখা চিরন্তন, অপরাজেয় বাংলা, স্বাধীনতা স্তম্ভ, শহীদ মিনারসহ বিভিন্ন জায়গায় গানটির ভিডিওর শুটিং হয়েছে। ভিডিওতে মডেল হয়েছেন কোনাল নিজেই। এ প্রসঙ্গে কোনাল বলেন, গানটি লেখা ও ভিডিও নির্মাণে যারা জড়িত, তারা কিংবদন্তি। তাদের সঙ্গে কাজের সুযোগ পাওয়া বড় ভাগ্যের ব্যাপার। গানটির সুর করেছেন শেখ সাদী খান ও সঙ্গীতায়োজনে আছেন আজম বাবু।

প্রিয়ালী বুটিকের যাত্রা শুরু

Piyal-Botiqসম্প্রতি রাজধানীর গুলশানে পিংক সিটির অষ্টম তলায় সবুজে ঘেরা প্রাকৃতিক পরিবেশে চালু হয়েছে প্রিয়ালী বুটিকের শোরুম। এই বুটিক শোরুমটিতে মসলিন, জামদানি, টাঙ্গাইল, সিরাজগঞ্জের তাঁতের শাড়ী থেকে শুরু করে শিফন, জর্জেট সব ধরনের শাড়ীকে নতুন আঙ্গিকে উপস্থাপন করা হয়েছে। প্রিয়ালী বুটিকের প্রত্যেকটি পোশাকেই নিঘাত ইমামের নিজস্ব চিন্তা ভাবনার প্রতিফলন রয়েছে। এছাড়া আরও রয়েছে সেলোয়ার-কামিজ, পাঞ্জাবি, কুর্তি, টপ্‌স্‌, ফতুয়া, কস্টিউম, জুয়েলারী, ইভিনিং পার্স ইত্যাদি। এই হাউজের পোশাক শুধু উৎসবের জন্যই নয় কর্মক্ষেত্র থেকে শুরু করে সব জায়গার জন্যই পরিধেয়। আবার দিনের শেষে সামান্য কিছু জুয়েলারী বা ইভিনিং পার্স নিয়ে একটি পার্টিতেও যাওয়া যাবে। প্রিয়ালীর স্বত্বাধিকারী নিঘাত ইমাম যুক্তরাষ্ট্র থেকে ফাইন আর্টস ও গ্রাফিক্স ডিজাইনে লেখাপড়া শেষ করেন। ২০১৩ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনে প্রথম প্রিয়ালী বুটিকের যাত্রা শুরু হয়। দীর্ঘদিন যাবৎ তিনি বিদেশে ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে জড়িত ছিলেন। হ্যান্ড পেইন্ট তার ডিজাইনের একটি প্রিয় মাধ্যম। শাড়ী বা পোশাকের উপর তিনি ট্র্যাডিশনাল ফুল, লতাপাতা, পাখির বাইরেও বিমূর্ত ধারার শিল্পকর্ম ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করেন। নিঘাত ইমামের ডিজাইন গতানুগতিক ধাঁচের নয়, দীর্ঘদিন বাইরে থাকার কারণে দেশীয় ডিজাইনের সঙ্গে বিদেশি ডিজাইনের একটি মেলবন্ধন ঘটিয়ে থাকেন। হ্যান্ড পেইন্টের বাইরেও তার বুটিকে রয়েছে অ্যাম্ব্রয়ডারী আর হাতের সেলাইয়ের দক্ষতা।