Home টি-২০ আড্ডা প্রথম রোনালদো দ্বিতীয় নেইমার আর তৃতীয় মেসি-সুষমা সরকার

প্রথম রোনালদো দ্বিতীয় নেইমার আর তৃতীয় মেসি-সুষমা সরকার

SHARE
SUSOMA

মোহাম্মদ তারেক
আনন্দ আলো: সুষমা নামের অর্থ কী?
সুষমা সরকার: সুষমা নামের অর্থ হচ্ছে সুন্দর।
আনন্দ আলো: এত কাজ থাকতে অভিনয়ে এলেন কেন?
সুষমা সরকার: কারণ অভিনয়কে আমি ভীষণ ভালোবাসি। অভিনয় ছাড়া আর কিছু পারি না। এখন মনে হয় এটা ছাড়া আমি থাকতেও পারবো না। অভিনয় করবো কখনোও ভাবিনি। কিন্তু যখন থেকে অভিনয় করা শুরু করেছি তখন থেকে অভিনয় ছাড়া কিছু ভাবতে পারি না।
আনন্দ আলো: জীবনের মোড় ঘুরিয়ে দেয় যে কাজ অর্থাৎ নাটকটি…
সুষমা সরকার: জীবনের মোড় কী আদৌ ঘুরেছে হা… হা… হা। লোকজন আমাকে চিনতে শুরু করেছে সৈয়দ আওলাদের ‘নন্দিনী’ নাটক এবং নারী নির্যাতন বিরোধী একটা বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে।
আনন্দ আলো: ক্যামেরার সামনে প্রথম দিন…
সুষমা সরকার: ২০০০ সালে ঘটনা। মোরশেদুল ইসলামের পরিচালনায় ‘লারা’ ডকুড্রামাতে আমি প্রথম ক্যামেরার সামনে দাঁড়াই। ঠিক ভয় না কেমন যেন এক অনুভূতি কাজ করেছিল।
আনন্দ আলো: আপনার অভিনীত প্রথম নাটক…
সুষমা সরকার: মাসুম রেজার রচনা এবং গিয়াস উদ্দিন সেলিমের পরিচালনা ‘সাদা মেঘের বৃষ্টি’ নাটকটি আমার অভিনীত প্রথম নাটক।
আনন্দ আলো: আপনার অভিনীত নাটকের কোন সংলাপটি এখনো হৃদয়ে গেঁথে আছে?
সুষমা সরকার: আমার অভিনীত ‘শুকুন্তলা’ নাটকের একটা সংলাপ ছিলÑ ‘মা আমি আজ ধূপ জ্বালাবো পায়ে পরবো সোনার নূপুর…’ আমার নীচে নদী চলে আসবে ভুল পথে। আমি ওই আকাশ কন্যা এই বিকেল বেলার ওই তারাটির মতো… দূরের আকাশ আমাকে দিয়েছে নীল ঘামাচি তুমি দিয়েছো সোনালি চাঁপার গন্ধ।
আনন্দ আলো: সারারাত গল্প করার মতো বন্ধু…
SUSOMA-1সুষমা সরকার: আমি তো রাত জাগতে পারি না। যদি জাগি তবে সেটা হবে মম।
আনন্দ আলো: জীবনে যে সময়টা ফ্রেমে বন্দি রাখার মতো…
সুষমা সরকার: আমার বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের দিনগুলোর ওই সময়টা ফ্রেমে বন্দি করে রাখার মতো।
আনন্দ আলো: মিডিয়ার যে ব্যাপারটা ভালো লাগে না?
সুষমা সরকার: মিডিয়ায় যতটুকু সময় চোখের সামনে থাকে ততটুকু সময়ই ভালোবাসা। চোখের আড়াল হলেই সব শেষ। এই বিষয়টা ভালো লাগে না।
আনন্দ আলো: খুব রেগে যান যখন…
সুষমা সরকার: যখন রেগে যাই তখন তোতলাতে থাকি আর কান্না পায়।
আনন্দ আলো: যাকে অথবা যাদের দেখে এখনো অভিনয় শিখি…
সুষমা সরকার: যখনই কেউ ভালো অভিনয় করে তখনই তার কাছ থেকে আমি শিখি। সে আমার ছোটও হতে পারে। তবে গুণী অভিনয় শিল্পী যারা তাদের কাছ থেকে আমি প্রতিনিয়ত অনুপ্রেরণা পাই।
আনন্দ আলো: গোপন কোন কথাটি স্বামীর কাছে বলেন না?
সুষমা সরকার: আমার গোপনীয়তা খুব কম। আমি জলের মতো স্বচ্ছ একটা চরিত্র। তবে যে কথাটি জানলে মনে হয় রাগ করবে সেই কথাটা এখন আর তাৎক্ষণিক ভাবে বলি না। কিন্তু পরে সময় বুঝে আবার বলে দেই।
আনন্দ আলো: একটা ছেলে মানুষী চাওয়া…
সুষমা সরকার: রূপকথার রাজকন্যা হতে মন চায়…
আনন্দ আলো: যে চরিত্রের ভেতরে ঢুকে পড়েছিলাম…
সুষমা সরকার: একজন অভিনেত্রীর জন্য সবচেয়ে বড় কষ্টের ব্যাপার সে যদি কোনো চরিত্র নিজের মধ্যে লালন করতে না পারে। সব সময় সেটা হয়ে উঠে না, তবে বেশির ভাগ সময় চেষ্টা করি। সেদিক থেকে ‘নোলক’ নাটকের পদ্মর কথা রুদ্রছায়া চলচ্চিত্রের মেহেবুবা।
আনন্দ আলো: যে সহ শিল্পীর অভিনয় মুগ্ধ করেছে
সুষমা সরকার: পাভেল ভাই, শতাব্দীদাকে সহ শিল্পী হিসেবে পেলে ভালো লাগে। ভালো লাগে প্রভা এবং মমকে পেলেও। এছাড়া কম বেশি সবার অভিনয়ই ভালো লাগে। তবে মুগ্ধ হই হুমায়ূন ফরীদি এবং আসাদুজ্জামান নূর ভাইয়ের অভিনয় দেখে।
আনন্দ আলো: বন্ধুরা আমাকে যা বলে খ্যাপায়…
সুষমা সরকার: ছোটবেলায় বন্ধুরা খ্যাপাতো মোটকো বলে। বড় বেলায় তেমন একটা খ্যাপায় না। আমার মেয়ে আমাকে দুষ্ট বুড়ি বলে খ্যাপায়। হা… হা… হা…।
আনন্দ আলো: বিশ্বকাপ ফুটবল চলছে। খেলা দেখছেন?
সুষমা সরকার: আমি আগে খুব একটা খেলা দেখতাম না। তবে এবার খুব মনোযোগ দিয়ে খেলা দেখছি। ব্রাজিলের খেলা ভালো লাগছে। ওরা খুব সুন্দর খেলছে। আমি আর্জেন্টিনার সাপোর্টার। আমার প্রিয় খেলোয়াড় মেসি এবং রোনালদো।
আনন্দ আলো: লটারীতে টিকেট পেলেন বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলা দেখার জন্য। কাকে সঙ্গে নিতে চাইবেন?
সুষমা সরকার: আমার বন্ধু জামাই লিটন কর এবং আমার মেয়ে গল্পকে সঙ্গে নিতে চাইব। সপরিবারে স্টেডিয়ামে বসে বিশ্বকাপের খেলা দেখার আনন্দটাই অন্যরকম।
আনন্দ আলো: আপনার চোখে সবচেয়ে সুদর্শন খেলোয়াড়?
সুষমা সরকার: আমার চোখে সবচেয়ে সুদর্শন খেলোয়াড় পর্তুগালের রোনালদো।
আনন্দ আলো: মেসি, রোনালদো এবং নেইমার… আপনার কাছে তাদের র‌্যাঙ্কিং কেমন?
সুষমা সরকার: এবার বিশ্বকাপ ফুটবলে আমি প্রথমে এগিয়ে রাখতে চাই রোনালদোকে, দ্বিতীয় নেইমার এবং তৃতীয় মেসি।