Home আরোও বিভাগ টিভি গাইড কাছের মানুষ আপন জন

কাছের মানুষ আপন জন

SHARE
AB-1-(176)

অনেক মানুষের ভীড়েও দূর থেকে হাত নাড়লেন আইয়ুব বাচ্চু। বললেন, বিকেলে গান করবো থাকবেন তো? উত্তরে বললাম, আজ চ্যানেল আই-এর জন্মদিন। আজ শুধুই আনন্দের দিন। থাকবো সারাদিন। আর আপনার গান শোনার জন্যই তো অপেক্ষা করছি। আমার কথা শুনে মন খুলে হাসলেন প্রিয় শিল্পী। বললেন, চ্যানেল আই তো আমার নিজের বাড়ি। এখানে এলে অনেক শান্তি পাই। কথা বলতে বলতেই চ্যানেল আই-এর ভিতরে বোধকরি স্টুডিওর দিকে পা ফেললেন তিনি।
গিটারের জাদুকর, প্রিয় শিল্পী আইয়ুব বাচ্চু যথার্থই বলেছেন। বাংলার ভাষার প্রথম ডিজিটাল স্যাটেলাইট টিভি মাধ্যম চ্যানেল আই-এর সাথে ছিল শিল্পীর আত্মার সম্পর্ক। চ্যানেল আই-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগরকে তিনি পিতার মতো সম্মান করতেন। একদিন কথায় কথায় বলেছিলেন, আমার জীবনে ফরিদুর রেজা সাগরের অবদান অনেক। আমার দুর্দিনে তিনি অনেক সহযোগিতা করেছেন। কোনো কারণে আমার মন খারাপ থাকলেই চ্যানেল আইতে ছুটে আসি। ফরিদুর রেজা সাগরের সাথে দেখা করার পর নিমিষেই আমার দুঃখ কেটে যায়। শুধু ফরিদুর রেজা সাগরই নন চ্যানেল আই-এর গোটা পরিবার আইয়ুব বাচ্চুকে অনেক গুরুত্ব দিতেন। চ্যানেল আই-এর অনেক ইভেন্টের সাথে আইয়ুব বাচ্চু জড়িত ছিলেন। চ্যানেল আই-এর সিগনেচার টিউন ও চ্যানেল আই সংবাদের টিউন সহ চ্যানেল আই-এর মিউজিক বিষয়ক বড় বড় অনেক কাজের সাথে সক্রিয় ছিলেন আইয়ুব বাচ্চু। প্রতি বছর পহেলা বৈশাখে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের আঙিনায় হাজার কণ্ঠে বর্ষবরণ অনুষ্ঠানের তিনি ছিলেন নিয়মিত শিল্পী। চ্যানেল আই-এর আলোচিত ব্যান্ড ফেস্ট এর তিনিই ছিলেন মূল কান্ডারি। মূলত আইয়ুব বাচ্চুর প্রস্তাব অনুযায়ী চ্যানেল আই কর্তৃপক্ষ প্রতি বছর ডিসেম্বর মাসের প্রথম দিনকে ‘ব্যান্ড ফেস্ট ডে’ হিসেবে বাৎসারিক ক্যালেন্ডারে চ‚ড়ান্ত করেছে। এনিয়ে একটা চমকপ্রদ গল্প আছে। চ্যানেল আই-এর বহুল আলোচিত অনুষ্ঠান তারকাকথনে অতিথি হয়ে এসেছিলেন আইয়ুব বাচ্চু। সেবার চ্যানেল আই তারুণ্যের ষোল বছরে পা দিয়েছে। অনুষ্ঠানের উপস্থাপক মৌসুমী বড়–য়া চ্যানেল আই-এর ষোল বছর প্রসঙ্গ তুলেই বাচ্চুকে বিভিন্ন প্রশ্ন করছিলেন। এক প্রশ্নের জবাবে বাচ্চু বলেন, তারুণ্যের ষোল শ্লোগানটি বেশ চমৎকার। কিন্তু আমি ব্যক্তিগত ভাবে তারুণ্যের ষোল বছরটাকে খুব একটা উপভোগ করতে পারিনি। ওই বয়সে আমাকে জীবনের সাথে অনেক লড়াই করতে হয়েছে। সংসারের হাল ধরতে হয়েছে। তাই জীবনের ওই সময়টার আনন্দ আমি পাইনি।
চ্যানেল আইতে নিজের রুমে বসে অনুষ্ঠানটি দেখছিলেন ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর। আইয়ুব বাচ্চুর কথাগুলো শুনে তিনি আবেগ তাড়িত হয়ে ওঠেন। অনুষ্ঠানের মাঝেই তিনি বাচ্চুর জন্য ষোলটি বিশেষ সাইজের চকলেট পাঠান। অনুষ্ঠানে চকলেট উপহার দিয়ে উপস্থাপক মৌসুমী বড়–য়া বাচ্চুকে জিজ্ঞেস করেন, বলতে পারবেন এই উপহার আপনাকে কে পাঠিয়েছে? উত্তরে আইয়ুব বাচ্চু বলেন, তাৎক্ষণিক ভাবে এত সুন্দর উপহার পাঠানো ফরিদুর রেজা সাগরের পক্ষেই সম্ভব। তিনি আমার পিতার মতো। ফরিদুর রেজা সাগরের পরামর্শ অনুযায়ী মৌসুমী বড়–য়া আইয়ুব বাচ্চুর কাছে জানতে চান, এই মুহূর্তে আপনি আপনার একটা প্রত্যাশার কথা বলুন। তখন আইয়ুব বাচ্চু বলেন, আমার একটা প্রত্যাশা আছে। ব্যান্ড সঙ্গীতের জন্য বছরের একটি দিন চাই। দিনটির নাম হবে ‘ব্যান্ড ফেস্ট ডে’। বিশেষ এই দিনটিতে দেশের ব্যান্ড শিল্পীরা এক মঞ্চে গান গাইবেন। তখনও টিভি পর্দায় চোখ কান খোলা ছিল ফরিদুর রেজা সাগরের। আইয়ুব বাচ্চুর প্রস্তাব শুনে তিনি উপস্থাপককে জানিয়ে দেন, বাচ্চুকে বলো তার ইচ্ছে অনুযায়ী বছরের একটি দিন ‘ব্যান্ড ফেস্ট ডে’ পালন করবে চ্যানেল আই এবং দিনটি হবে প্রতি বছরের ১ ডিসেম্বর। ফরিদুর রেজা সাগরের এই সিদ্ধান্ত সাথে সাথেই আইয়ুব বাচ্চুকে সে কথা জানিয়ে দেন উপস্থাপক মৌসুমী বড়–য়া। আইয়ুব বাচ্চু যেন বিশ্বাসই করতে পারছিলেন না। কারণ কয়েক মুহূর্ত আগে শুধুমাত্র প্রস্তাব করেছেন। অথচ সাথে সাথেই প্রস্তাব পাস। বিস্ময়ে অভিভ‚ত আইয়ুব বাচ্চু সেদিন আনন্দে চোখের পানি ফেলেছিলেন। সেই থেকে প্রতি বছর ১লা ডিসেম্বর চ্যানেল আই প্রঙ্গনে ‘ব্যান্ড ফেস্ট ডে’ অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। এবারের অনুষ্ঠানের জন্য আলোচনায় বসবেন বলে কথা দিয়েছিলেন আইয়ুব বাচ্চু। অথচ নিয়তির কি নির্মম পরিহাস এবার আইয়ুব বাচ্চুকে স্মরণ করেই বোধকরি ‘ব্যান্ড ফেস্ট ডে’ পালন করা হবে।